অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্র – কিউবা অর্ধ শতাব্দীর পর, সম্পর্ক স্বাভাবিক করছে


A woman holds a Cuban flag while celebrating the restoration of diplomatic relations between the island nation and the United States, in the courtyard of the Cuban Embassy in Santiago, Chile, Wednesday Dec. 17, 2014. After a half-century of Cold War acrim

A woman holds a Cuban flag while celebrating the restoration of diplomatic relations between the island nation and the United States, in the courtyard of the Cuban Embassy in Santiago, Chile, Wednesday Dec. 17, 2014. After a half-century of Cold War acrim

APTOPIX US Cuba Miami

APTOPIX US Cuba Miami

যুক্তরাষ্ট্র, অর্ধ শতাব্দীর পর, কিউবার সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া হয়। অনেকে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে একমত যে কিউবানদের দূরে রাখার নীতি, যুক্তরাষ্ট্রের স্বার্থ এগিয়ে নিতে ব্যর্থ হয়েছে। সমালোচকরা বলছেন কিউবার সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করাটা হচ্ছে কিউবার স্বৈরাচারী কমিউনিস্ট প্রশাসনকে সমর্থন দেওয়া। মি ওবামা বুধবার নতুন নীতিমালার কথা ঘোষণা করেন। আর ওই একই দিনে দুদেশের মধ্যে বন্দী বিনিময় হয়।

Zlatica Hoke এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়েছেন। রিপোর্টি পড়ে শোনাচ্ছেন শাগুফতা নাসরিন কুইন।

বুধবার প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, কিউবার প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের নীতি পরিবর্তন করার কথা ঘোষণা করার পর, মাইয়ামিতে Cuban-American communityতে ব্যাপক আলোড়ন দেখা যায়।

A man drives his car holding a poster with pictures of the Cuban Five, celebrating their freedom, in Havana, Cuba, Wednesday, Dec. 17, 2014. After a half-century of Cold War acrimony, the United States and Cuba abruptly moved on Wednesday to restore diplo

A man drives his car holding a poster with pictures of the Cuban Five, celebrating their freedom, in Havana, Cuba, Wednesday, Dec. 17, 2014. After a half-century of Cold War acrimony, the United States and Cuba abruptly moved on Wednesday to restore diplo

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বলেন "এই সব পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও কিউবার জনগনের জন্য আমরা আরও সুযোগ সৃষ্টি করতে চাই। এবং উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকার বিভিন্ন দেশের মধ্যে একটা নতুন অধ্যায়ের সূচনা হচ্ছে।"

যারা ফিডেল কাস্ট্রোর কিউবা থেকে পালিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে এসেছে তাদের অনেকেই দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা ও যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞার মাধ্যমে communist প্রশাসনকে একঘরে করে রাখার নীতিকে সমর্থন করেছে। যদিও ওই সব নীতির জন্য তাদের পরিবারের সদস্যরা ফ্লরিডার Key West থেকে ১৭০ কিলোমিটার দুরত্ব অতিক্রম করে কিউবার রাজধানী হাভানায় যেতে পারেনি।

এক CUBAN-AMERICAN, CARLOS MUÑOZ FONTANIL, বলেন "সে দেশে কাস্ট্রোর প্রশাসনের কারণে যে ৫০ হাজারের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে এটা তাদের প্রতি একটা বিশ্বাসঘাতকতা। এটা কিউবার প্রতি একটা বিশ্বাসঘাতকতা। আমরা কিউবার জন্য আর চিন্তা করছিনা। আমরা যুক্তরাষ্ট্রের জন্য চিন্তা করছি।"

অনেকে কিন্তু তাদের জন্মভূমি ও নতুন দেশের মধ্যে সম্পর্ক সাভাবিক করার জন্য দীর্ঘ দিন ধরে চাপ দিচ্ছে।

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সিদ্ধান্তে একজন অত্যন্ত খুশি হয়েছেন। তিনি হলেন যুক্তরাষ্ট্রের AIDর ত্রাণ কর্মী অ্যালান গ্রোস। ৫ বছর কিউবায় কারাভোগ করার পর তিনি বুধবার মুক্তি পান।

অ্যালান গ্রোস বলেন " আমার কাছে কিউবানরা বা তাদের অধিকাংশই অত্যন্ত দয়ালু, উদার এবং প্রতিভাবান। আমার কাছে এটা খুব দুঃখজনক মনে হয় যে দুই সরকারের বৈরিতামূলক নীতিমালার জন্য কিউবানদের প্রতি অন্যায় আচড়ন করা হয়।"

বুধবার যে ৩ কিউবানকে মুক্তি দেওয়া হয়, হাভানায় অনেক বাসিন্দা তাকে স্বাগত জানায়। যুক্তরাষ্ট্রে গুপ্তচরবৃত্তির জন্য তারা বন্দী ছিল।

ওদিকে কিউবান প্রেসিডেন্ট রাউল কাস্ট্রো বলেন মি ওবামা আরও অনেক কিছু করতে পারেন।

কিউবান প্রেসিডেন্ট বলেন "অর্থনৈতিক, বানিজ্যিক ও আর্থনীতিক নিষেধাজ্ঞার কারণে আমাদের দেশে লোকজনকে যে দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে এবং যে অর্থনৈতিক ক্ষতি হয়েছে তার অবসান ঘটতে হবে।পরিবর্তন সত্তেও যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট তার নির্বাহী ক্ষমতা ব্যবহার করে আরও কিছু করতে পারেন।

বহু আমেরিকান যারা কিউবান বংশদ্ভুত তারা হাভানার সঙ্গে সম্পর্ক কোনও ভাবে ভাল করার বিপক্ষে। এদের মধ্যে একজন হচ্ছেন যুক্তরাষ্টের ফ্লরিডার সেনেটর মার্কো রুবিও।

সেনেটর মার্কো রুবিও বলেন “এটা কাস্ট্রো প্রশাসনক ক্ষনতায় থাকতে সাহায্য করবে। প্রশাসন কিউবান জীবন যাত্রার সব কিছুই নিয়ন্ত্রণ করে।

কিন্তু ঘোষণার পর থেকেই সব যায়গা থেকে সাধুবাদ জানানো হচ্ছে।

XS
SM
MD
LG