অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

শনিবার অনুষ্ঠিত হলো যুক্তরাষ্ট্রের মোটমাট পাঁচটি রাজ্যে বাছাই পর্বের প্রাইমারী ও ককাস প্রতিদ্বন্দীতা


গতকাল শনিবার অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো যুক্তরাষ্ট্রের মোটমাট পাঁচটি রাজ্যে দু’ হাজার ষোলো সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রার্থী হতে প্রত্যাশি দলীয় সদস্যদের প্রাথমিক বাছাই পর্বের ভোটের লড়াই প্রাইমারী ও ককাস প্রতিদ্বন্দীতা। রেপাবলিকান দলের তরফে এই ভোট লড়াই হয় চারটি রাজ্যে যার ভেতরে দু’টিতে লুইযিয়ানা ও কেন্টাকীতে জয়ি হয়েছেন রেপাবলিকান দলের এ যাবৎ সর্বাগ্রগন্য প্রার্থী ডনাল্ড ট্রাম্প আর বাকি দু’টি রাজ্য মেইন ও ক্যানসাসে জয়ি হয়েছেন সেনেটর টেড ক্রুয। সেনেটর মার্কো রুবিও এবং গভর্নর জন কেসীক চারটি রাজ্যের কোনোটিতেই জিততে পারেন নি।

গতকাল শনিবার ডেলিগেইট সংখ্যার দিক দিয়ে সেনেটর টেড ক্রুয কিন্তু ডনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে এগিয়ে ছিলেন – তবে মোট ডেলিগেইট সংখ্যায় আবার এখনো ট্রাম্পই সবার আগে রয়েছেন । এপর্যন্ত তিনি পেয়েছেন মোট ৩ শ’ ৭৮ ডেলিগেইট- যেখানে সেনেটর টেড ক্রুযের ডেলিগেইট সংখ্যা এই পর্যায়ে মোট ২ শ’ ৯৫।

অপর দিকে ডেমোক্র্যাটদের পক্ষে ভারমন্ট সেনেটর বার্নী স্যান্ডার্স জিতেছেন ক্যানসাস ও নেব্রাসকার ককাস ভোটে। সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারী ক্লিনটন বিপুল সখ্যাধিক্য ভোট পেয়ে জিতলেন যে রাজ্যটিতে তার নাম লুইযিয়ানা।

ক্নিনটন অবশ্য মোট ডেলিগেইট সংখ্যায় স্যান্ডার্সের চেয়ে অনেক এগিয়ে রয়েছেন । এপর্যন্ত ক্লিনটন পেয়েছেন মোট এক হাজার এক শ’ ২১ ডেলিগেইট- স্যান্ডার্স পেয়েছেন মাত্রই চার শ’ ৭৯ ডেলিগেইট।

স্যান্ডার্স অবশ্য বলছেন- আমরা কিন্তু গতিময়তা লাভ করছি-সঞ্জীবনী শক্তি লাভ করেছি আমরা -প্রাণস্পন্দনে উজ্জিবীত এখন আমরা এবং এভাবেই আমরা এগিয়ে যাবো সটান ফিলাডেলফিয়ার ডেমোক্র্যাটিক পার্টীর ন্যাশনাল কনভেশনের মঞ্চ অবধি। বলেন বড়ো লোকদের,বিত্তশালিদের-ব্যবসাপতিদের চাঁদা চাইনা আমরা।

ট্রাম্প তাঁর গতকালকের বিজয়কে অভাবনীয় চমৎকার সাফল্য রুপে অভিহিত করেছেন এবং টেড ক্রুযকে উদ্দেশ করে নিউ ইয়র্ক-পেনসেলভেনিয়া-ক্যালিফোর্নিয়ার প্রতিদ্বন্দিতার উল্লেখে সেয়ানে সেয়ানে ভোট লড়াইয়ের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন।অপর প্রতিদ্বন্দী সেনেটর মার্কো রুবিওকে উদ্দেশ করে ট্রাম্প বলেছেন- রুবিওর এখন নির্বাচনের লড়াইয়ে ক্ষান্ত দিয়ে হঠে যাওয়াটাই শ্রেয় বিবেচিত হবে। ট্রাম্প গর্বভরে বাগাড়ম্বরতায় উল্লসিত ব্যক্তব্যের অবতারনা করে বলেন- এই যে তিনি ভুরি ভুরি ভোট পাচ্ছেন- জনগনের ঢালাও সমর্থন লাভ করছেন, এ থেকেই রেপাবলিকান পার্টীর বুঝে যাওয়া উচিত কিভাবে জনগন তাঁকে চাইছেন-আর সেইভাবেই পার্টীর উচিত নিজেদেরকে ঠিকঠাক গুছিয়ে নেওয়া। সেনেটার ক্রুয কিন্তু শনিবার যে সংখ্যায় ডেলিগেইট জিতেছেন তা উল্লেখযোগ্য যে সেটা বলাই বাহুল্য।

রেপাবলিকান দলিয়রা যুক্তরাষ্ট্র অন্তর্গত ভূখন্ড পুয়োরটোরিকোতে আজ রবিবার প্রাইমারী ভোটে অংশ নিচ্ছেন। আরো চার রাজ্যে এ ভোট হবে মঙ্গলবার। আর সেনেটর রুবিও অপেক্ষা করে রয়েছেন তাঁর নিজ রাজ্য ফ্লরিডার ভোট লড়াইয়ের জন্যে- সেখানে প্রাইমারী ভোট হবে পনেরো মার্চ মঙ্গলবার।

ইতিমধ্যে ডেমোক্র্যাট দলিয় দু’ মনোনয়ন প্রত্যাশী হিলারী ক্লিনটন ও বার্নী স্যান্ডার্স আজ রবিবার রাতে সপ্তম বিতর্ক অনুষ্ঠানে হাজির হবে মিশিগান রাজ্যের ফ্লিন্টে।

ভয়েস অফ এ্যামেরিকার রিপোর্ট:পড়ছেন সরকার কবীরুদ্দীন।

XS
SM
MD
LG