অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে,শিক্ষার্থীরা বলেন, সরকার আন্দোলনের মুখে ভ্যাট প্রত্যাহারে বাধ্য হয়েছে।


ভ্যাট প্রত্যাহারে
ছাত্রদের উল্লাস
তীব্র ছাত্র বিক্ষোভের মুখে বাংলাদেশে বেসরকারি উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টিউশন ফি’র ওপর আরোপিত ভ্যাট প্রত্যাহার করে নিয়েছে সরকার। সোমবার বিকেলে অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। এতে বলা হয়, সরকার কোন মতেই শিক্ষাঙ্গনে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করতে চায় না এবং জনজীবনে অসুবিধারও সৃষ্টি করতে চায় না। সেই দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনা করে সরকার ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিক্যাল কলেজ এবং ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ওপর যে সাড়ে ৭ শতাংশ মূসক (মূল্য সংযোজন কর) আরোপিত হয় সেটি প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর আগে সকালে মন্ত্রিসভার বৈঠক শুরুর আগে ভ্যাট প্রত্যাহারের ব্যাপারে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতকে নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর পরপরই সরকার ভ্যাট প্রত্যাহার করে নিচ্ছে এমন খবর ছড়িয়ে পড়ে। এতে বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরা অবরোধ প্রত্যাহার করে আনন্দ-উল্লাসে মেতে ওঠেন।
এ সময় শিক্ষার্থীরা বলেন, সরকার আন্দোলনের মুখে ভ্যাট প্রত্যাহারে বাধ্য হয়েছে। উচ্চ শিক্ষায় ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে প্রায় তিন মাস ধরে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করে আসছে। গত বুধবার ইস্ট-ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে পুলিশ হামলা চালায়। পরদিন শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে পুরো রাজধানী অচল হয়ে পড়ে। শিক্ষার্থীরা নয়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভ্যাট দিবেÑ জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের এমন ব্যাখ্যার পরও আন্দোলন অব্যাহত থাকে। রোববারও রাজধানী কার্যত অচল থাকার পর অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সরকারের নমনীয় হওয়ার ইংগিত দেন। বাংলাদেশে ৮৩টি বেসরকারি উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায় ৫ লাখ শিক্ষার্থী অধ্যায়ন করে।
ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরীর রিপোর্ট:

XS
SM
MD
LG