অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিশ্বের সব দেশেই ভিটামিন এ-র অভাব স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে এক বিরাট সমস্যা


বিশ্বের সব দেশেই ভিটামিন এ-র অভাব স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে এক বিরাট সমস্যা

বিশ্বের সব দেশেই ভিটামিন এ-র অভাব স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে এক বিরাট সমস্যা

সব দেশেই দেখা যায় ভিটিমান এ-র অভাব এক গনস্বাস্থ্য সমস্যা । বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পর্যালোচনা অনুযায়ী, বিশেষ করে আফ্রিকা এবং দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশে তা এক বিরাট সমস্যা । ভিটামিন এ-র অভাবে সকল বয়সের ছেলেমেয়েদের অন্ধত্ব দেখা দিতে পারে । আর বিকাশমুখী দেশগুলোয় প্রায় ৬ লক্ষ ৫০ হাজার শিশু মৃত্যুর কারণ ভিটামিন এ-র অভাব ।
গবেষকরা বলছেন, ফুসফুসের ওপরও এর প্রভাব দেখা যায় ।

ডঃ উইলিয়াম চেকলী হলেন মেরীল্যাণ্ড রাজ্যের বল্টিমোর শহরে জনস্ হপকিন্স স্কুল অফ মেডিসিনে প্লুমোনোলজিস্ট, নেপালে ছোট ছেলেমেয়েদের নিয়ে এক পরীক্ষা চালিয়ে দেখেছেন যে তাদের মধ্যে ভিটামিন এ-র দারুণ অভাব।

ডঃ চেকলী বলেন, এর আগে তারা জীবজন্তুর ওপর ভিটামিন এর প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে গবেষণা চালিযে দেখতে পান যে, তা ফুসফুসের কার্যকারিতায় সহায়ক হয় ।
ডাক্তার চেকলী এবং তার সহকর্মীরা ১৯৯৪ সাল থেকে ১৯৯৭ সালের মধ্যে জন্মগ্রহণকারী প্রায় ১৪শো শিশুর ফুসফুসের ক্রিয়া নিয়ে পরীক্ষা চালান । গবেষকরা দেখেছেন – যে সব শিশুর মা গর্ভধারণ ও তারপর বাড়তি ভিটামিন এ খেয়েছেন, তাদের ফুসফুসের অবস্থা অন্যদের চাইতে তিনগুন ভাল ।

XS
SM
MD
LG