অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

হ্যালো ওয়াশিংটন : আফগানিস্তান থেকে জোট সৈন্য প্রত্যাহার এবং ঐ অঞ্চলের নিরাপত্তার ভবিষ্যৎ


আপনাদের জিজ্ঞাসা আর আমাদের বিশেষজ্ঞ অতিথীদের জবাবের এই আসর হ্যালো ওয়াশিংটনে আপনাদের সব্বাইকে স্বাগত জানাচ্ছি । যেমনটি একটু আগেই শুনলেন আমাদের আজকের বিষয় আফগানিস্তান থেকে জোট সৈন্য প্রত্যাহার এবং ঐ অঞ্চলের নিরাপত্তার ভবিষ্যৎ । আজ আমাদের অতিথী প্যানেলে টেলি সম্মিলনি লাইনে ঢাকা থেকে যোগ দিয়েছেন, নিরাপত্তা বিষয়ক বিশিষ্ট বিশ্লেষক অবসরপ্রাপ্ত এয়ার কমোডর ইশফাক ইলাহী চৌধুরী।

রয়েছেন কোলকাতা থেকে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ের অধ্যাপক জয়ন্ত কুমার রায় । আর আছেন করাচি থেকে সংবাদ বিশ্লেষক মাশকাওয়াত আহসান।

যেমনটি আমরা সকলেই জানি যে আফগানিস্তান থেকে International Security Assistance Force ( ISAF) আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা সহযোগিতা বাহিনী , যোদ্ধৃ সৈন্যরা ২০১৪ সালের ৩১ শে ডিসেম্বর ফিরে এসছে , যুক্তরাষ্ট্র ও নেটোর সৈন্য প্রত্যাহারের মাধ্যমে। সেখানে অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রের এগারো হাজার সৈন্য রয়ে গেছে , যারা মূলত প্রশিক্ষণ ও পরিকল্পনায় সাহায্য করবে আফগান বাহিনীকে । তেরো বছর পর এই সৈন্য প্রত্যাহারের ইতিবাচক দিক নিয়ে যেমন প্রচন্ড আশা ব্যক্ত করা হয়েছে অভ্যন্তরীণ ভাবে , খোদ আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি একে স্বাগত জানিয়েছেন , বলেছেন এর ফলে আফগানিস্তানের সার্বভৌমত্ব প্রতিষ্ঠিত হলো ; অন্যদিকে আফগানিস্তানে এই সৈন্য প্রত্যাহারের আগে কিংবা পরে সহিযংসতা কমেছে বলে মনে হচ্ছে না। পাকিস্তান ও তাদের নিজেদের তালিবান আক্রমণে বিপর্যস্ত

হচ্ছে বার বার। রয়েছে পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মধ্যে সহযোগিতার অভাবও । সেখানকার এই সব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে অনেক বিশ্লেষকই বলছেন যে সৈন্য প্রত্যাহার সহিংসতা রোধে সহায়ক না ও হতে পারে । এ সব কিছুর আলোকেই আজকে শ্রোতাদের প্রশ্ন ।

XS
SM
MD
LG