অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ব্রাজিল বিশ্বকাপ দেখতে, ব্রাজিলে ভীড় জমেছে নানা দেশের, বিভিন্ন সংস্কৃতি আর ভাষাভাষী মানুষের। যুক্তরাষ্ট্র থেকে যেমন ২০ হাজারেরও বেশী পর্যটক এখন ব্রাজিলের নগর-জনপদে ঘুরে বেড়াচ্ছেন, ঠিক তেমনিভাবে বেলজিয়ামের একেবারেই হাতেগোনা দর্শক বেলজিয়াম দলকে উত্সাহ দিতে সেখানে গিয়ে উপস্থিত হয়েছেন। বেলজিয়ামের ফুটবল ভক্তরা শুধু বেলজিয়াম থেকেই নয়, যেমন ইমাদ, নাসের আর বেন এসেছেন বেলজিয়াম, মরক্কো আর তিউনিসিয়া থেকে। ব্রাজিলে বেশ গরম পড়েছে, তাই খেলা দেখার ফাঁকে নদীতে বা সমুদ্রে গিয়ে সাঁতার কাটার বাড়তি আনন্দে মেতেছেন তারা। উপহার সামগ্রীর কেনাকাটাও চলছে পাশাপাশি।
যুক্তরাষ্ট্রের কনেটিকাট থেকে জেসি গ্রিফিন ও তার ছেলে জেস বিশ্বকাপ ফুটবলের আনন্দে যোগ দিয়েছেন। আর দূর উগান্ডা থেকে অস্কার সেমওয়েইয়া মুসোকে ও তার বন্ধুরা মিলে চমত্কার সময় কাটাচ্ছেন সেখানে। অস্কার বললেন, এখানে এসেছি কেন জানেন? ফুটবলের জন্য। জানালেন তার অলীক স্বপ্নের কথা। হয়তো ১৫ বছরে উগান্ডা দলও বিশ্বকাপে খেলবে। এমন স্বপ্ন দেখতে ক্ষতি কি?
অস্ট্রেলিয়া থেকে পাড়ি দিয়েছেন পিটার ও ম্যাণ্ডি আবুদ। তাদের কথা – নাহ্, ব্রাজিলে কোন সমস্যা নেই, আসলে সিডনীর তুলনায় এখানকার যানবাহন চলাচল ভাল মনে হচ্ছে। যানজটে অনেকখানি সময় ধরে বসে থাকতে হয়না। আর খোদ রিওর বাসিন্দা লুই হেনরিক দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করেন যে, তাদের ব্রাজিল দলই এবার বিশ্বকাপ শিরোপা জিতবে। ব্রাজিলই তো চ্যাম্পিয়ান। হারজিত যাই হোক না কেন…..এই মূহুর্তে ব্রাজিলের আনন্দ উত্সব, আর সেরা ফুটবল খেলা উপভোগ করছেন ভিন্ দেশ থেকে যাওয়া সবাই।
XS
SM
MD
LG