অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ব্রাজিল বিশ্বকাপের আগে অনেকেই ভবিষ্যতবাণী করেছিলেন, দেশটির উচ্চতা এবং গরম আবহাওয়া ইউরোপীয়নদের জন্য অসুবিধার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। শুক্রবার কোষ্টারিকার কাছে ১-০ গোলে ইটালীর পরাজয়, অপর ইউরোপীয়ন ফুটবল শক্তি ইংল্যান্ডের বিদায়, মনে করিয়ে দিচ্ছে সেই ভবিষ্যৎবাণী। বিশ্লেষকদের মতে ইউরোপীয়নদের তুলনায় ভালো করছে ল্যাটিন আমেরিকান দলগুলো।

প্রথম পর্বেই গতবারের চ্যাম্পিয়ান স্পেনের বিদায় হয়তো এখন পর্য্যন্ত সবচাইতে উল্লেখযোগ্য ঘটনা। নেদারল্যাণ্ডসের কাছে ৫-১ এবং চিলির কাছে ২-০ গোলে পরাজয় চরম ব্যর্থতা বটে। খেলোয়াড়দের বয়স বেড়েছে, কোচ সঠিকভাবে নবীন আর অভিজ্ঞ প্রবীনদের নিয়ে দল গড়তে পারেননি।

ওদিকে গ্রুপ অফ ডেথ বলে অভিহিত গ্রপ জি-তে যুক্তরাষ্ট্র মুখোমুখি হচ্ছে জার্মানী, পর্তূগাল আর ঘানার। গত দুইবার ঘানার কাছে পরাস্ত আমেরিকা এবার শোধ তুলেছে, ঘানাকে হারিয়েছে খেলার শুরুতে মাত্র ৩৪ সেকেণ্ডে আর এক্কেবারে শেষ মূহুর্তে ৮৬ মিনিটের মাথায় গোল করে, ২-১ গোলে যুক্তরাষ্ট্র জিতে গেল।

অনেকেই জানতে চান যুক্তরাষ্ট্র কতবার বিশ্বকাপে খেলেছে? এবার নিয়ে ১০বার।
১৯৩০ সালে উরুগুয়ের মাঠে সেমি ফাইনালে খেলে ৩য় স্থানে ছিল। ১৯৩৪ সালে প্রথম রাউণ্ডে খেলেছে । ১৯৩৮ সালে খেলেনি, ১৯৫০এ গ্রুপ পর্বে। তারপর অনেক বছর পেরিয়ে ১৯৯০ সালে গ্রুপ পর্বে খেলেছে। আর ১৯৯৪ সালে স্বাগতিক দেশ হিসেবে বিশ্বকাপের আয়োজন করে এবং ১৬টি দলের পর্যায় খেলে আর এগোতে পারেনি। ১৯৯৮ সালে গ্রুপ পর্ব, ২০০২ সালে কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত, ২০০৬ সালে গ্রুপ পর্ব আর ২০১০ সালে ১৬টি দলের রাউণ্ডে খেলেছে। রবিবার যুক্তরাষ্ট্র খেলবে পর্তুগালের সঙ্গে।

আর সবচাইতে বয়স্ক খেলোয়াড় কে ছিলেন? ১৯৯৪ সালে ক্যামেরুনের রজার মিলা। আর সবচাইতে কম বয়সী খেলোয়াড় ছিলেন – উত্তর আয়ারল্যাণ্ডের নরম্যান হোয়াইটসাইড ১৭ বছর বয়সে বিশ্বকাপে খেলেছেন। নরম্যান ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড দলের খেলোয়াড় ছিলেন দীর্ঘদিন।
XS
SM
MD
LG