অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আজ ২৪ মার্চ, বিশ্বের বিভিন্ন দেশ বিশ্ব যক্ষ্মা দিবস পালন করছে। ওদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা WHO, বিশ্বব্যাপী যে যক্ষ্মা রোগের প্রকোপ দেখা দিয়েছে তা অবসানের লক্ষ্যে এক নতুন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। আগামী ২০ বছরে বিশ্বব্যাপী যক্ষ্মা রোগ নির্মূল করার লক্ষ্যে, সব দেশকে সমর্থন দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

জিনিভা থেকে এসম্পর্কে রিপোর্ট পাঠিয়েছেন ভয়েস অফ আমেরিকার Lisa Schlein। পড়ে শোনাচ্ছেন শাগুফতা নাসরিন কুইন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এর আগে যে দুটো কলা কৌশল অবলম্বন করে সেগুলো বর্তমানের এই সর্বসাম্প্রতিকতম পরিকল্পনা গ্রহণের পথ সুগম করে দিয়েছে। WHO এ বিষয়ে নিশ্চিত যে তাদের বর্তমানের End TB শীর্ষক কলা কৌশল কার্যকর হওয়ার বেশ ভাল সম্ভাবনা আছে কারণ DOT TB চিকিৎসা ব্যবস্থা এবং Stop TB পরিকল্পনা খুবই সফল হয়েছে। এ শতাব্দির গোড়াতে DOT TB এবং Stop TB শুরু হয়।

সামপ্রতিক বছরগুলোতে যক্ষ্মা রোগের বিরুদ্ধে অভিযানে প্রচন্ড অগ্রগতি হয়েছে। আনুমানিক হিসেব অনুযায়ী ২০০০ থেকে ২০১৩ সালের মধ্যে যক্ষ্মা রোগ নির্ধারণ ও চিকিৎসার মাধ্যমে ৩ কোটি ৭০ লক্ষ মানুষের জীবন বাচানো গেছে। কিন্তু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে এই মরণব্যাধি মোকাবেলার জন্য আরও অনেক কিছু করা প্রয়োজন।

WHOর Global TB কার্যক্রমের পরিচালক Mario Raviglione বলেছেন, কয়েক সহস্রাব্দ ধরে যে মহামারীর কারণে লোকজনের মৃত্যু ঘটেছে, রোগে কষ্ট পেতে হয়েছে, তা নির্মূল করার এক ঐতিহাসিক সুযোগ করে দেবে এই End TB পরিকল্পনা।

মি: Raviglione বলেন “আমাদের মনে রাখতে হবে যে ২০১৩ সালে টিবিতে ৯০ লক্ষ মানুষ সংক্রামিত হয়। এর মধ্যে ১৫ লক্ষ প্রাণ হারায়, ৩ লক্ষ ৬০ হাজার মানুষ HIVতে সংক্রামিত এবং সেই একই বছরে ৫ লক্ষ মানুষের টিবি রোগ ধরা পড়েছে যাদের দেহে বেশ কয়েকটি ঔষধ কাজ করেনি। তার ফলে সবাই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে। এই সব রোগীদের চিকিৎসা করা কঠিন এবং তাদের উচ্চ মৃত্যুর হার হয়।.”

যক্ষ্মা বায়ু বাহিত এবং অত্যন্ত সংক্রামক রোগ। HIV’র পর যক্ষ্মা হচ্ছে দ্বিতীয় সংক্রামক ব্যাধি যেটিতে সবচাইতে বেশি রোগী মারা যায়। যারা যক্ষ্মায় মারা যায় তাদের ৯৫ শতাংশই উন্নয়নশীল দেশগুলোতে।

যক্ষ্মা রোগের চিকিৎসা আছে এবং তা প্রতিরোধ করা যায়। এই তথ্যের উপরই নির্ভর করে WHO তাদের নতুন পরিকল্পনা কার্যকর করতে চেষ্টা করছে। এই পরিকল্পনার অধীনে ২০৩৫ সালের মধ্যে যক্ষ্মা রোগ ৯০ শতাংশ এবং যক্ষ্মা রোগে মৃত্যুর ঘটনা ৯৫ শতাংশ হ্রাস করার কথা বলা হচ্ছে।

যক্ষ্মা রোগীদের এবং তাদের পরিবারদের যে বিপুল পরিমানে অর্থ ব্যয় করতে হয় সেটা নির্মূল হবে আগামী ৫ বছরে সেটাই আশা করা হচ্ছে।

Dr. Raviglione VOAকে বলেছেন যে নতুন ঔষধ ও রোগ নির্ধারণের পন্থা আবিষ্কৃত হচ্ছে।

XS
SM
MD
LG