অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

অক্সিজেন সংকট, ভারত ফেরত ১০ করোনা রোগী হাসপাতাল থেকে পালিয়েছে


অক্সিজেন সংকট, ভারত ফেরত ১০ করোনা রোগী হাসপাতাল থেকে পালিয়েছে

বাংলাদেশে যেকোনো মুহূর্তে অক্সিজেন সংকট সৃষ্টি হতে পারে। ভারতে অক্সিজেন সংকট দেখা দেয়ায় বাংলাদেশে এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

বাংলাদেশে যেকোনো মুহূর্তে অক্সিজেন সংকট সৃষ্টি হতে পারে। ভারতে অক্সিজেন সংকট দেখা দেয়ায় বাংলাদেশে এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। বাংলাদেশ ভারত থেকেই বেশিরভাগ অক্সিজেন আমদানি করে থাকে। গত চারদিনে কোনো অক্সিজেনবাহী ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করেনি। লিন্ডে বাংলাদেশ লিমিটেড ভারত থেকে তরল অক্সিজেন আমদানি করে থাকে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র জানায়, দেশে বর্তমানে অক্সিজেনের চাহিদা ১৫০ টন। লিন্ডে বাংলাদেশ সরবরাহ করছে ৮০ টন। এবং স্পেক্ট্রা সরবরাহ করছে ৩৮ টন। এই দুটি প্রতিষ্ঠান নিজস্ব প্লান্টে অক্সিজেন উৎপাদন করে। পাশাপাশি তারা ভারত থেকেও আমদানি করে থাকে। ভারত থেকে আমদানি বন্ধ হয়ে যেতে পারে, এই আশঙ্কা থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর চুক্তিবদ্ধ দুই প্রতিষ্ঠানের বাইরে দেশীয় আরো তিনটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে অক্সিজেন পেতে যোগাযোগ করেছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক ফরিদ হোসেন মিয়া বলেন, এখন পর্যন্ত সরবরাহ ব্যবস্থায় কোনো বিঘ্ন হয়নি। বিকল্প কোনো দেশ থেকে অক্সিজেন আনার কোন পরিকল্পনা এখন পর্যন্ত নেই।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, কোভিড পরিস্থিতির আগে দেশে দৈনিক ১০০ টন মেডিকেল গ্রেড অক্সিজেনের চাহিদা ছিল। কোভিড রোগীদের সংখ্যা বাড়ায় হাইফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা, ভেন্টিলেটর ও আইসিইউ’র চাহিদা অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যাওয়ায় অক্সিজেনের চাহিদা বেড়ে গেছে।

লিন্ডে বাংলাদেশে সব সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানের প্রয়োজনীয় অক্সিজেনের বড় অংশ সরবরাহ করে। এর মধ্যে নারায়ণগঞ্জে অবস্থিত প্ল্যান্ট থেকে ৬০ টন এবং চট্টগ্রামে অবস্থিত প্ল্যান্ট থেকে ২০ টন অক্সিজেন উৎপাদন করে। লিন্ডে বাংলাদেশের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ভারত থেকে আমদানি বন্ধ হলেও নিজস্ব উৎপাদন বাড়িয়ে তারা সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করবেন।

ওদিকে ভারত থেকে আসা ১০ জন করোনা রোগী যশোর জেনারেল হাসপাতাল থেকে লাপাত্তা হয়ে গেছেন। বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে দেশে আসা এই রোগীদের ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। হাসপাতালটির তত্ত্বাবধায়ক ডা. দিলীপ কুমার রায় বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরো ৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৩৩০৬ জন।

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে চলমান বিধি-নিষেধ আরো এক সপ্তাহ বহাল রাখার নতুন সিদ্ধান্ত হয়েছে। ২৮শে এপ্রিলের পরবর্তী সাত দিন এ বিধিনিষেধ কার্যকর থাকবে।

ওদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা মহামারি থেকে দ্রুত উত্তরণে উন্নত বিশ্বের সহযোগীতা কামনা করেছেন। জাতিসংঘে- এসকেপের ৭৭ তম অধিবেশনে ধারণকৃত এক বক্তৃতায় চলমান করোনা সংকট থেকে মুক্তি পেতে চার দফা প্রস্তাব তুলে ধরেন। ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী

please wait

No media source currently available

0:00 0:02:34 0:00
সরাসরি লিংক



XS
SM
MD
LG