অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আদৌ বাংলাদেশের নির্বাচন হবে কিনা তা নিয়ে অনেকেই এখনো শংকিত


বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বাকী ১০ দিন। এই নির্বাচন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পর প্রথম নির্বাচন যা ক্ষমতাসীন একটি সরকারের অধীনে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বাকী ১০ দিন। এই নির্বাচন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পর প্রথম নির্বাচন যা ক্ষমতাসীন একটি সরকারের অধীনে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সেই বিবেচনায় ঘটনাটি ঐতিহাসিক। দেশ বিদেশের মানুষ ৩০ ডিসেম্বরের দিকে তাকিয়ে আছে কেমন নির্বাচন হয় তা দেখতে। নির্বাচন কমিশন সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে বলেছে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন। সার্বিক অবস্থার নিরিখে এবারের নির্বাচনের নানা ভিন্ন ভিন্ন, নতুন নতুন দিক রয়েছে। যেমন, একক দলীয় না হয়ে এবার দলগুলো জোটবদ্ধভাবে নির্বাচনে যাচ্ছে। প্রধান দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি এরই মধ্যে নির্বাচনে তাদের ইশতেহার ঘোষনা করেছে।

সরকার দলীয় জোট বলছে নির্বাচন সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ন ও অংশগ্রহনমূলক করতে সরকার সচেষ্ট। বিরোধী জোট বলছে এখনো পর্যন্ত নির্বাচনের পরিবেশ নেই, লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নেই, নিরাপত্তা অবস্থা ভালো না, বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার ও হয়রানী চলছে। আদৌ নির্বাচন হবে কিনা তা নিয়ে অনেকেই এখনো শংকিত।

কি রয়েছে কার ইশতেহারে- বাংলাদেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে তা কতোটা যৌক্তিক, নির্বাচনী ইশতেহারের কতোটুকু গুরুত্ব আছে? জিতলে কি কেউ ইশতেহার মানে? নির্বাচন নিয়ে মানুষের মনে যে শংকা ও প্রশ্ন তাই বা কতোটা যৌক্তিক এসব নিয়ে আজকের আলোচনায় আমাদের ষ্টুডিওতে যুক্ত হয়েছেন সাংবাদিক নাইমুল ইসলাম খান, বাংলাদেশ যুব মহিলা লিগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি অপু উকিল।

please wait

No media source currently available

0:00 0:42:53 0:00

XS
SM
MD
LG