অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইসরাইলের কারাগার থেকে ছয় বন্দী পালানোর পর ব্যাপক অভিযান


ইসরাইলি সৈন্যরা ইসরাইল-অধিকৃত পশ্চিম তীরের দিকে যাওয়া একটি বেড়ায় পাহারা দিচ্ছে, এই সপ্তাহের শুরুতে গিলবোয়া কারাগার থেকে পালিয়ে যাওয়া ছয় ফিলিস্তিনিকে ধরার প্রচেষ্টা চলছে। মুকিবিলা গ্রাম, উত্তর ইসরাইল , ৯ই সেপ্টেম্বর, ২০২১, ছবি-রয়টার্স

এই সপ্তাহের শুরুতে উত্তর ইসরাইলের একটি কারাগার থেকে সন্ত্রাসবাদের দায়ে দোষী সাব্যস্ত ছয় ফিলিস্তিনি পালিয়ে যাওয়ার পর ব্যাপক অভিযান চলছে।

প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেটের নতুন সরকারের জন্য কারাগার থেকে পালানোর এ ঘটনা প্রথম বারের মত গুরুতর নিরাপত্তা চ্যালেঞ্জ এবং ইসরাইলের ইতিহাসে কারাগার থেকে পালানোর অন্যতম বড় ঘটনা।

সোমবার ভোরে উত্তর ইসরায়েলের গিলবোয়া কারাগারের কাঠামোগত ত্রুটির সুযোগ নিয়ে ঐ ছয়জন পালিয়ে যায়। ঐ কারাগার পশ্চিম তীর থেকে মাত্র কয়েক কিলোমিটার দূরে।
তারা তাদের জেলের কামরার টয়লেটের নিচে একটি ধাতব প্লেট খুলে ফেলতে এবং স্যুয়ারেজ সিস্টেমের মাধ্যমে পালাতে সক্ষম হয়েছিল। কর্মকর্তারা জানান, পালিয়ে যাওয়া ব্যক্তিরা দৃশ্যত বাইরে থেকে সাহায্য পেয়েছে এবং তাঁরা পোশাক পরিবর্তন করতে পেরেছিল এবং একটি গাড়ি তাদের জন্য অপেক্ষা করছিল।

কারাগারের ভেতরের টয়লেটের মধ্য দিয়ে অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে টানেল খুঁড়েন বন্দিরা। কয়েক মাসের প্রচেষ্টায় খোঁড়া টানেলটি কারাগারের দেয়ালের বাইরে পর্যন্ত প্রসারিত করেছিলেন এবং এই গর্ত দিয়ে ওই ছয় বন্দি বেরিয়ে আসেন
কারাগারের ভেতরের টয়লেটের মধ্য দিয়ে অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে টানেল খুঁড়েন বন্দিরা। কয়েক মাসের প্রচেষ্টায় খোঁড়া টানেলটি কারাগারের দেয়ালের বাইরে পর্যন্ত প্রসারিত করেছিলেন এবং এই গর্ত দিয়ে ওই ছয় বন্দি বেরিয়ে আসেন

ছয়জনের মধ্যে পাঁচ জন ইসলামী জিহাদ গোষ্ঠীর সদস্য ছিল, এটি পশ্চিম তীরের সবচেয়ে চরমপন্থী গোষ্ঠীগুলোর একটি এবং তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন ইসরাইলিদের হত্যার জন্য যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ভোগ করছিল। ষষ্ঠ জন জাকারিয়া জুবাইদেহ নামে চিহ্নিত, এবং আল-আকসা শহীদ ব্রিগেডের একজন সিনিয়র সদস্য ছিলেন। এটি এমন একটি গোষ্ঠী যাকে যুক্তরাষ্ট্র এবং অন্যান্য সরকার একটি সন্ত্রাসী সংগঠন মনে করে।

ইসরাইলি সেনারা হাজার হাজার সৈন্য ও পুলিশকে ওই ব্যক্তিদের খোঁজে পাঠিয়েছে এবং ইহুদিদের নববর্ষের জন্য জারি করা কারফিউ বাড়িয়েছে। তারা বেশ কয়েকদিন ধরে বন্দিদের সাথে পারিবারিক সাক্ষাৎ বন্ধ করে দিয়েছে।

ইসরায়েলি কর্মকর্তারা মনে করেন, ওই ব্যক্তিরা এখনও ইসরায়েল বা পশ্চিম তীরে রয়েছেন। ইসরায়েল সমস্ত ইসলামিক জিহাদ বন্দীদের গিলবোয়া কারাগার থেকে অন্যান্য কারাগারে স্থানান্তরিত করেছে, বেশ কয়েকটি কারাগারে দাঙ্গা শুরু হয়েছে। পশ্চিম তীর এবং পূর্ব জেরুজালেমে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে বিক্ষোভও দেখা গেছে, যার মধ্যে সহিংস সংঘর্ষও ছিল যা প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন যে বৃহস্পতিবার ছড়িয়ে পড়েছে।

XS
SM
MD
LG