অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

করোনা ভাইরাসের টিকার ৫০ লাখ ডোজ ২৫ বা ২৬শে জানুয়ারি বাংলাদেশে পৌঁছাবে


করোনা ভাইরাসের টিকার ৫০ লাখ ডোজ ২৫ বা ২৬শে জানুয়ারি বাংলাদেশে পৌঁছাবে

করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রয়োগের পর বিভিন্ন দেশে কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার খবর পাওয়া গেলেও বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জনগণকে এ বিষয়ে উদ্বিগ্ন না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। 

করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রয়োগের পর বিভিন্ন দেশে কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার খবর পাওয়া গেলেও বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জনগণকে এ বিষয়ে উদ্বিগ্ন না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির উদ্যোগে সোমবার ঢাকায় আয়োজিত মিট দ্য রিপোর্টার্স অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এমন আহ্বান জানিয়ে বলেন সরকার করোনা টিকার পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার এ সকল খবরের ওপর নজর রাখছে। তিনি বলেন এ কারনেই সরকার টিকা দান কেন্দ্রগুলো হাসপাতালে স্থাপন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যাতে কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার সেবা সেখানেই দেয়া সম্ভব হয়।

চুক্তি অনুযায়ি ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার ৫০ লাখ ডোজের প্রথম চালান ২৫ বা ২৬শে জানুয়ারি দেশে এসে পৌঁছাবে বলে উল্লেখ করে জাহিদ মালেক বলেন চুক্তির বাইরেও অতিরিক্ত কিছু ডোজ ভ্যাকসিন ভারত সরকারের কাছ থেকে উপহার হিসেবে পাওয়া যাবে। তবে তিনি তাঁর বক্তব্যে ভারতের এ উপহারের পরিমান কিংবা এগুলো কোণ কোম্পানির তৈরি ভ্যাকসিন সে সম্পর্কে কিছু বলেন নাই।

তিনি বলেন অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা ছাড়াও ফাইজার, মডার্না, স্পুৎনিকসহ অন্যান্য যেসকল ভ্যাকসিন তৈরি হচ্ছে সেগুলো আনারও চেষ্টা করা হচ্ছে। পাশাপাশি ফাইজার-বায়োএনটেকের আট লাখ ডোজ ভ্যাকসিন পেতে সরকার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কাছে প্রয়োজনীয় নথি জমা দিয়েছে বলে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন ইউনিসেফের সহযোগিতায় দেশের টিকা সংরক্ষণ ব্যাবস্থার উন্নয়নের পদক্ষেপও নেয়া হয়েছে। তিনি করোনা মকাবেলায় সরকারের সাফল্যের দাবি করে বলেন এসবই সম্ভব হয়েছে সুষ্ঠ চিকিৎসা ও ব্যবস্থাপনার কারনে।

এদিকে, স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানিয়েছেন ঢাকা শহরের বাসিন্দাদের করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন দিতে অন্তত ৫০টি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে প্রায় ৩২০ থেকে ৩৩০ টি টিকাদান কেন্দ্র স্থাপন করা হবে। তবে তাঁরা জানিয়েছেন এসকল টিকাদান কেন্দ্রের সবগুলো একদিনেই চালু করা হবে না বরংপর্যায়ক্রমে এগুলোর কাজ শুরু করা হবে। এছাড়া যারা ভ্যাকসিন দেবেন তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে এবং প্রয়োজনীয় সরঞ্জামেরও ব্যাবস্থা করা হয়েছে বলে তাঁরা জানান । অন্যদিকে, সরকারের স্বাস্থ্য বিভাগ আজ জানিয়েছে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬ জন করোনা রোগী প্রান হারিয়েছেন এবং অপর ৬৯৭ জন নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

please wait

No media source currently available

0:00 0:02:50 0:00


XS
SM
MD
LG