অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ও শনাক্তের রেকর্ড


হাসপাতালে নিতে এ্যাম্বুলেন্সে ওঠানো হচ্ছে রোগীকে

স্বাস্থ্য দপ্তরের বুলেটিনে বলা হয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয় ৩৯ হাজার ৮৬০ জনের। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ২৯ দশমিক ৬৭ শতাংশ। ঢাকা বিভাগেই মারা গেছেন ৫৬ জন। খুলানায় ৬৬, চট্টগ্রামে ৩৯, রাজশাহীতে ২৬, বরিশালে ৮, সিলেটে ৮, রংপুরে ২২ ও ময়মনসিংহে মারা গেছেন ৫ জন। 

বাংলাদেশে ফের লাফ দিয়েছে করোনা। একদিন আগেও সংক্রমণ আর মৃত্যুর প্রবণতা ছিল কমতির দিকে। আজকের খবর, গত ২৪ ঘণ্টায় ২৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই সময় সংক্রমিত হয়েছেন ১১ হাজার ৮৭৪ জন।

ইতিপুর্বে এত বিপুল সংখ্যক মানুষ সংক্রমিত বা মৃত্যুবরণ করেননি। এর আগে ৮ই জুলাই ১১ হাজার ৬৫১ জন সংক্রমিত হন। পরেরদিন সর্বোচ্চ ২১২ জনের মৃত্যু হয়।

স্বাস্থ্য দপ্তরের বুলেটিনে বলা হয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয় ৩৯ হাজার ৮৬০ জনের। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ২৯ দশমিক ৬৭ শতাংশ। ঢাকা বিভাগেই মারা গেছেন ৫৬ জন। খুলানায় ৬৬, চট্টগ্রামে ৩৯, রাজশাহীতে ২৬, বরিশালে ৮, সিলেটে ৮, রংপুরে ২২ ও ময়মনসিংহে মারা গেছেন ৫ জন।

ওদিকে স্বাস্থ্য দপ্তর আবারও সতর্ক করেছে। বলেছে, সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না এলে এক সপ্তাহের মধ্যে পরিস্থিতি হবে করুণ। দপ্তরটির মুখপাত্র অধ্যাপক রোবেদ আমিন রোববার এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এ আশঙ্কা ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, সব জেলাতেই কোভিড ছড়িয়ে পড়েছে। বেড়ে চলেছে সংক্রমণ।

জুন মাসে সংক্রমণ ছিল এক লাখ ১২ হাজার। এ মাসের প্রথম দশ দিনেই এক লাখ ছাড়িয়ে গেছে। মুখপাত্র বলেন, হাসপাতালে রোগীর চাপ অস্বাভাবিকভাবে বাড়ছে। এভাবে বাড়তে থাকলে বেড খালি পাওয়া যাবে না।

আইসিইউ বেডেরও সংকট হবে। করোনা রোগীদের চিকিৎসায় হাসপাতালের অনিয়মের খবর লিখে কারারুদ্ধ হন ঠাকুরগাঁওয়ের সাংবাদিক তানভীর হাসান তানু। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দায়ের করা মামলায় গতরাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সাংবাদিক তানু নিজেই করোনা আক্রান্ত ছিলেন।

করোনা রোগীদের জন্য খাবার বাবদ বরাদ্দ রয়েছে তিনশত টাকা। অথচ রোগীদের দেয়া হচ্ছে মাত্র ৭০ টাকা। এই খবর প্রকাশের পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার বিরুদ্ধে মামলা ঠুকে দেয়। ঠাকুরগাঁওয়ের ভার্চুয়াল আদালত যখন জানতে পারেন গ্রেপ্তারকৃত সাংবাদিক করোনা আক্রান্ত তখন তার জামিন দেন। তানভীর হাসান তানু জাগোনিউজ ছাড়াও ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশন ও ইত্তেফাকের জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

সরকারি অফিসের দাপ্তরিক কাজ ভার্চুয়ালি করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সংক্রমণের উর্ধগতির কারণে পহেলা জুলাই থেকে সরকারি, আধাসরকারি, বেসরকারি অফিস বন্ধ রয়েছে।

XS
SM
MD
LG