অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মন্তব্য করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী


Mamata

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন বিজেপি টাকা দিয়ে দল ভাঙানোর চেষ্টা করছে। পশ্চিমবঙ্গের হুগলির ভদ্রেশ্বরের জনসভা থেকে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মন্তব্য করলেন। তিনি বললেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নির্লজ্জ, কোনও আইন মানছেন না। তাঁর প্রার্থীপদ বাতিল হওয়া উচিত।’

কলকাতা থেকে বিস্তারিত জানিয়েছেন পরমাশিষ ঘোষ রায়।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:28 0:00

এবারের লোকসভা ভোটে বাংলায় সম্মুখসমরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজনীতির লড়াইয়ে কেউ কাউকে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়তে নারাজ। রাজ্যের হুগলি জেলায় শ্রীরামপুরে দলের প্রার্থীর সমর্থনে জনসভা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। জনসভা থেকে স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে মমতাকে যেমন আক্রমণ করেন, তেমন রাজ্যে রাজনৈতিক সমীকরণ নিয়ে বিস্ফোরক দাবি করেন নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দেশে তো বটেই, ২৩ মে এ রাজ্যেও গেরুয়া ঝড় বইবে। বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে ৪০ জন তৃণমূল বিধায়ক। লোকসভা ভোটের ফল বেরোলেই তাঁরা গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাবেন।’ প্রকাশ্য জনসভায় খোদ প্রধানমন্ত্রীর এমন মন্তব্যে রাজনৈতিক মহলে শোরগোল পড়ে যায়। দল ভাঙানোর অভিযোগে নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দায়ের করেছে তৃণমূল।আজ মঙ্গলবার হুগলি জেলার ই ভদ্রশ্বরে কেন্দ্রে দলের প্রার্থী রত্না দে নাগের সমর্থনে জনসভা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নরেন্দ্র মোদিকে তাঁর হুঁশিয়ারি, ‘বাংলায় বিধায়ক কিনতে আসবেন না। চল্লিশ জন কেন, তৃণমূল কংগ্রেসের একজন বিধায়কও বিজেপিতে যাবে না। চল্লিশ জন বিধায়ক যদি দলবদল করে, তাহলে দলত্যাগ বিরোধী আইনে পড়বে। প্রধানমন্ত্রী কোনও আইন মানছেন না, দল ভাঙানোর চেষ্টা করছেন। তাঁর প্রার্থী বাতিল হওয়া উচিত’ বলেও মন্তব্য করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

XS
SM
MD
LG