অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারত যুক্তরাষ্ট্রের নির্ভরযোগ্য বন্ধু দেশ- মাইক পম্পেও


যুক্তরাষ্ট্রের বিদেশ মন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন ভারত যুক্তরাষ্ট্রের একটি অত্যন্ত নির্ভরযোগ্য বন্ধু দেশ, যার উপর আস্থা রাখা চলে এবং যে দেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের মতের মিল আছে।

যুক্তরাষ্ট্রের বিদেশ মন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন ভারত যুক্তরাষ্ট্রের একটি অত্যন্ত নির্ভরযোগ্য বন্ধু দেশ, যার উপর আস্থা রাখা চলে এবং যে দেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের মতের মিল আছে।

ইউ এস ইন্ডিয়া বিজনেস কাউন্সিলের বার্ষিক ইন্ডিয়া আইডিয়াস সামিট অনুষ্ঠানে ভাষণ দিচ্ছিলেন। গতকাল ওই অনুষ্ঠানে তাঁর ভিডিও রেকর্ড করা ভাষণটি সম্প্রচারিত হয়। কয়েকদিন আগে এই অনুষ্ঠানটির ভার্চুয়াল উদ্বোধন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এখানে মাইক পম্পেও ছাড়াও ভারতের বিদেশ মন্ত্রী এস জয়শঙ্কর, দিল্লিতে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত কেনেথ জাস্টার এবং আরও অনেক বিশিষ্টজন ভাষণ দিয়েছেন।

পম্পেও খুব সোজাসাপ্টা ভাষায় বলেছেন ভারত আর যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বোঝাপড়া আরও বাড়ানো হবে বলে আমরা ঠিক করেছি। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিদেশনীতিতে ভারত ক্রমশই একটা গুরুত্বপূর্ণ জায়গা করে নিচ্ছে এবং চিনের কমিউনিস্ট পার্টি সারা বিশ্বে যে বিপদ ডেকে আনছে সেই চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করার জন্য ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশগুলোর একসঙ্গে কাজ করার সময় এসেছে।

মাইক পম্পেও বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা ক্ষেত্রে ভারত একটা উদীয়মান নক্ষত্র হয়ে উঠছে। আমরা আনন্দের সঙ্গে ঘোষণা করছি যে যুক্তরাষ্ট্র ভারতের সঙ্গে একটা নতুন সম্পর্ক স্থাপন করতে খুবই আগ্রহী। এবং শুধুমাত্র ভারত মহাসাগর ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলেই নয়, সারা বিশ্বে ভারতের সঙ্গে হাত মিলিয়ে যুক্তরাষ্ট্র প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তার স্বার্থে একযোগে কাজ করবে।

পম্পেও জানান, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বিশ্বের সাতটি অর্থনীতিতে উন্নত দেশের আসন্ন শীর্ষ বৈঠক জি-সেভেন'এ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গে আমার সাম্প্রতিককালে বেশ কয়েকবার কথা হয়েছে। আমরা দুজন আমাদের দুই বৃহত্তম গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রকে গণতন্ত্রের স্বার্থে একযোগে এগিয়ে নিয়ে যেতে প্রস্তুত। চিন শুধুমাত্র নিজের দেশ নিয়ে সন্তুষ্ট নয়। তারা তিব্বতে এবং চিনের মুসলিম উইঘুর সম্প্রদায়ের ওপর অত্যাচার চালিয়েছে, প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলোর জমি দখল করছে, ভারতের সঙ্গে সীমান্ত সংঘর্ষে লিপ্ত হয়ে কুড়ি জন ভারতীয় সৈন্যকে মেরে ফেলেছে এবং এখনও লাদাখে ভারতের ভূখণ্ড দখল করে রয়েছে। এইসবই যুক্তরাষ্ট্র নজর রাখছে এবং এই জন্যই ভারতের পাশে দাঁড়ানোর প্রয়োজন অনুভব করছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, চিন বলেছে, পম্পেওর এই ভাষণ প্ররোচনামূলক। ভারতকে চিনের বিরুদ্ধে লাগানোর চেষ্টা। দীপংকর চক্রবর্তী, ভয়েস অফ আমেরিকা, কলকাতা

please wait

No media source currently available

0:00 0:00:58 0:00


XS
SM
MD
LG