অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গুজবই সংবাদ


Rohingya camp

বিশ্বে রোহিঙ্গা সংকট শিরোনাম দখল করলেও নিজেদের সেই সংবাদ জানার সুযোগ নেই ক্যাম্পে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা শরণার্থীদের। ক্যাম্পে সংবাদের মোড়কে চলছে গুজব আর অপপ্রচারের দাপট। প্রত্যাবাসন কিংবা প্রত্যাবাসনের প্রাক-প্রস্তুতি সংক্রান্ত নানা খবর জেনে নিজ দেশে ফেরার প্রস্তুতি নিতে চান রোহিঙ্গারা।

কক্সবাজার থেকে বিস্তারিত জানাচ্ছেন মোয়াজ্জেম হোসাইন সাকিল।

please wait

No media source currently available

0:00 0:03:26 0:00


২০১৭ সালের ২৫ আগষ্টের পর বিশ্বের তাবৎ সংবাদকে পেছনে ফেলে শিরোনাম কেড়ে নেয় রোহিঙ্গা সংকট।
রোদ-বৃষ্টি মাথায় নিয়ে কাদা পথ মাড়িয়ে মিডিয়া কর্মীরা ছুটেছেন বিরামহীন। বিশ্ব পাঠকের দৃষ্টি নিবন্ধ হয়েছে রোহিঙ্গা সংবাদে। কিন্তু যাদের নিয়ে এতো সংবাদ, সেই রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী মিডিয়ায় প্রচারিত নিজেদের সংবাদ খুব কমই পেয়েছেন। ক্যাম্প জুড়ে গুজবই যেন সংবাদ।
রোহিঙ্গারা বলছিলেন, ছেলে-ধরা এবং শিশুদের মাথা কেটে নিয়ে যাওয়ার মতো সংবাদই বেশি পাচ্ছেন তারা। প্রত্যাবাসনের অগ্রগতির কোন খবর পাচ্ছেন না। কিন্তু শরণার্থী জীবনের অবসান ঘটিয়ে তারা ঘরে ফিরতে চান। এজন্য ত্রাণের চেয়েও প্রত্যাবাসন সংক্রান্ত সংবাদ পেতেই তারা বেশি আগ্রহী।
ক্যাম্পে সংবাদ সরবরাহ না থাকলেও রয়েছে সচেতনতামূলক পরিবেশনা। রেডিও’র বিশেষ অনুষ্ঠান শোনানোর মাধ্যমে ইতোমধ্যে রোহিঙ্গা শ্রোতাদের বেড়েছে জীবন দক্ষতা এবং সচেতনতা। রোহিঙ্গাদের অংশগ্রহণে রোহিঙ্গা ভাষায় মঞ্চায়ন করা হচ্ছে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা।
রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ এবং মানবিক সেবা কার্যক্রম অব্যাহত থাকলেও এখনও যথেষ্ট ঘাটতি রয়েছে তথ্য প্রদানে। রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, তাদের বোধগম্য ভাষায় তথ্য প্রদান করা হলে তাদের মাঝে সামাজিকভাবে সচেতনতা যেমন বৃদ্ধি পাবে, তেমনি অনেক বিভ্রান্তিও দূর হবে।

কক্সবাজারের ৩২টি ক্যাম্পের ১০ লক্ষাধিক রোহিঙ্গার মধ্যে মাত্র কয়েকটি ক্যাম্পের হাজার খানেক রোহিঙ্গা উপভোগ করছেন বিশেষ পরিবেশনা। কিন্তু শরণার্থী শিবিরের এই গুজবের রাজ্যে সঠিক খবর পেতে চান রোহিঙ্গারা; নিতে চান ঘরে ফেরার প্রস্তুতি।

XS
SM
MD
LG