অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিএনপি ভবিষ্যত নির্বাচনে অংশ নেবে এটা খোলাসা করেছেন দলটির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বলেছেন, নির্বাচনে যাবো। তবে এর আগে কয়েকটি বিষয় স্পষ্ট করতে হবে সরকারকে। ভোট হতে হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। জনগণ যাতে ভোটে আসতে পারে সে পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে। ভোটের আগে সংসদ ভেঙে দিতে হবে। ভোটের সময় সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। নির্বাচন কমিশনকে নিরপেক্ষ থাকতে হবে।
শনিবার জাতীয় নির্বাহী কমিটির এক সভায় খালেদা জিয়া তার এই সিদ্ধান্তের কথা জানান। জিয়া এতিমখানা দুর্নীতি মামলার সম্ভাব্য রায়ের পটভূমিতে ডাকা জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাড়ে চারশ’ সদস্য ছাড়াও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টাম-লীর সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন।
বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে কোনো লাভ নেই। জনগণ বিএনপির সঙ্গে রয়েছে। তিনি কর্মীদেরকে যে কোনো পরিস্থিতিতে শান্ত থাকার আহ্বান জানান। বলেন, বিচারব্যবস্থায় কি হচ্ছে তা সবাই জানেন। বিচারকরা স্বাধীনভাবে রায় দিতে পারেন না। সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার নাম উল্লেখ করে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাকে বলপূর্বক পদত্যাগ করতে বাধ্য করা হয়েছে। তিনি বলেন, আদালত সরকারের কব্জায়। তার ভাষায়Ñ কোনো অপরাধ করিনি। তারপরও সরকার জোর করে বিচার করতে চাইছে। খালেদা বলেন, সারা দেশে বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ৭৮ হাজার মামলা দেয়া হয়েছে। এতে আসামি করা হয়েছে ১৮ লাখ মানুষকে।
খালেদা বলেন, বিএনপির ভয় নেই। কারণ বিএনপির সঙ্গে জনগণ আছে। প্রশাসন, পুলিশ, মিলিটারি রয়েছে। কর্মীদের উদ্দেশে খালেদা বলেন, সতর্ক থাকবেন। বিএনপিকে ভাঙা এবং তাকে মাইনাস করার ষড়যন্ত্র হবে।
ওদিকে নির্বাহী কমিটির সভায় দলটির মহাসচিব মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, গত ৯ বছরে বিএনপির ১২ হাজার নেতাকর্মী খুন হয়েছেন। ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরীর রিপোর্ট।

please wait

No media source currently available

0:00 0:02:11 0:00


XS
SM
MD
LG