অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাম নবমীর উদযাপন নিয়ে পশ্চিমবঙ্গে চলছে রাজনৈতিক বিতর্ক


আগামী পঁচিশে মার্চ রাম নবমীর উদযাপন নিয়ে রাজ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে রাজনৈতিক বিতর্ক। আর এই রাজনৈতিক যুদ্ধে এক ইঞ্চি মাটি ছাড়তেও নারাজ বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। তাদের দাবি, পুলিস বলছে, ওইদিন রাম নবমীর মিছিল করবে তৃণমূল। তাই অনুমতি দেওয়া যাবে না। তবে অনুমতি না পেলেও মিছিলের হুঁশিয়ারি দিয়েছে ভিএইচপি।

গত বছর এপ্রিলে রাজ্য জুড়ে রাম নবমীর মিছিল করেছিল হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলি। রাস্তায় লোক জড়ো করে নিজেদের শক্তি বুঝিয়েছিল তারা। এ বছরও তেমনই পরিকল্পনা নিয়েছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। তাদের দাবি, রাজ্য জুড়ে পঞ্চাশ লক্ষ মানুষ মিছিলে অংশ নেবেন। এ বছর আবার রাম নবমী উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসও। সেখানে দলের নেতারা অংশ নিতে পারেন বলে সূত্রের খবর। ফলে রামকে নিয়ে শুরু হয়ে গিয়েছে টানাটানি। পুলিশের অনুমতি না পেলেও শোভাযাত্রার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। তাদের যুব শাখা বজরং দলই আয়োজনের দায়িত্বে। ভিএইচপির মুখপাত্র চন্দ্রনাথ দাস অভিযোগ করেন, ''তৃণমূল মিছিল করবে বলে অনুমতি দিচ্ছে না পুলিশ। এভাবে আমাদের রোখা যাবে না। রাজ্যের পঞ্চাশ লক্ষ মানুষ অংশ নেবেন মিছিলে।'' মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন, রাম নবমীতে অস্ত্র নিয়ে মিছিল করা যাবে না। বাজানো যাবে না গান। কঠোর হাতে পরিস্থিতির মোকাবিলা করবে পুলিস। শোভাযাত্রায় কি গতবারের মত অস্ত্রের ঝনঝনানি দেখা যাবে? চন্দ্রনাথ দাস এর কথায়, ''আমরা কাউকে অস্ত্র আনতে বলি না। তবে কেউ আনলে আনতে পারেন।''ওয়াকিবহাল মহলের মতে, তাহলে কি রাম নবমীর দিন আরেকটা রামায়ন দেখা যাবে মহানগরীতে।

please wait

No media source currently available

0:00 0:00:37 0:00

XS
SM
MD
LG