অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বজ্রপাতে এ বছর প্রাণহানী ঘটেছে ২৬ জনের


গত এক দশকের প্রতিবছরে বাংলাদেশে বজ্রপাতে প্রাণহানির সংখ্যা আশঙ্কাজনক ভাবে বাড়ছে বলে সরকারি এবং বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থার প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। বছর ঘুরে গ্রীষ্মকাল আসলেই বাংলাদেশের মানুষের কাছে এখন বজ্রপাত একটি আতঙ্কের নাম হিসেবে আবির্ভূত হয়। চলতি গ্রীষ্ম মৌসুমেও বজ্রপাত মানুষের মনে শুধু আতংকেরই সৃষ্টি করেনি, এর ফলে গত প্রায় চার সপ্তাহে প্রান হারিয়েছেন দেড় শতাধিক মানুষ। গতকাল বুধবার, একদিনেই, বজ্রপাতে এ বছরের সর্বাধিক সংখ্যক মানুষের প্রানহানী ঘটেছে যার সংখ্যা ২৬।

বৃহস্পতিবার সর্বশেষ পাওয়া খাবরে বজ্রপাতে অন্তত ৩ জনের প্রানহানীর খবর পাওয়া গেছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন বাংলাদেশে বজ্রপাত যেমন নতুন কোন বিষয় নয় তেমনি এর ফলে প্রাণহানিও ঘটছে যুগ যুগান্তর ধরে। তবে তারা বলেছেন বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব এবং মানুষের সৃষ্টি করা পরিবেশগত বিপর্যয়ের কারনে বজ্রপাতে প্রানহানীর সংখ্যা এখন ক্রমাগত ভাবে বেড়েই চলেছে।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের এক গবেষণা বলেছে গত আট বছরে দেশে বজ্রপাতে মারা গেছেন ১৮ শতাধিক মানুষ যার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৩০১ জন প্রাণ হরিয়াছেন ২০১২ সালে। তথ্য উপাত্ত থেকে জানা যায় বজ্রপাতে নিহতদের মধ্যে কৃষক এবং কৃষি শ্রমিকের সংখ্যাই বেশি। বাংলাদেশে বজ্রপাতে প্রাণহানির সংখ্যা ক্রমাগত ভাবে বৃদ্ধির বিষয়ে ভয়েস অফ অ্যামেরিকার সাথে কথা বলেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল এবং পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক মহাম্মদ সফি উল্যাহ। তিনি বলেন বজ্রপাতে প্রাণহানি রোধে দেশের বজ্রপাত প্রবন এলাকাগুলোতে সরকারি এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠান গুলোকে জনগণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে।

please wait

No media source currently available

0:00 0:04:13 0:00


XS
SM
MD
LG