অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলা স্পেশাল

গুপ্তচরবৃত্তি সংক্রান্ত আইন


গুপ্তচরবৃত্তি সংক্রান্ত আইন
please wait
Embed

No media source currently available

0:00 0:01:14 0:00

গুপ্তচরবৃত্তি সংক্রান্ত আইন একটি যুক্তরাষ্ট্রের আইন যেটি ১৯১৭ সালে কংগ্রেসে পাশ হয়, আমেরিকা প্রথম বিশ্ব যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ার পরপরই। যুক্তরাষ্ট্রের সাথে অন্যান্য দেশের কূটনৈতিক এবং বাণিজ্যিক সম্পর্কে হস্তক্ষেপ করার মতো অপরাধে, এই আইনে শাস্তির বিধান আছে।

গুপ্তচরবৃত্তি সংক্রান্ত আইন একটি যুক্তরাষ্ট্রের আইন যেটি ১৯১৭ সালে কংগ্রেসে পাশ হয়, আমেরিকা প্রথম বিশ্ব যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ার পরপরই। যুক্তরাষ্ট্রের সাথে অন্যান্য দেশের কূটনৈতিক এবং বাণিজ্যিক সম্পর্কে হস্তক্ষেপ করার মতো অপরাধে, এই আইনে শাস্তির বিধান আছে। আমেরিকার সামরিক অভিযান কিংবা নিয়োগ নিয়ে কেউ যেন বাক্তিগত হস্তক্ষেপ না করে, তা নিশ্চিত করা ছিল এই আইনের উদ্দেশ্য। এছাড়া যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে আমেরিকার মতের বিরুদ্ধাচার, শত্রু পক্ষকে সমর্থন, রাষ্ট্রীয় গোপন কোনও তথ্য বিদেশী রাষ্ট্রের কাছে পাচার করা, এমনকি সাংবাদিকদের কাছে রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্য কেউ যদি ফাঁস করে দেয়, তাকেও এই আইনের আওতায় এনে বিচারের মুখোমুখি করা হয়। এইসব অপরাধের শাস্তি, জরিমানা, কারাভোগ, এমনকি মৃত্যুদণ্ড পর্যন্ত হতে পারে। এই আইনের সমালোচনা করাও এক ধরনের অপরাধ, তবে বাক স্বাধীনতা বিষয়ে সোচ্চার অনেকের মতে, এই আইন সংবিধানের প্রথম সংশোধনীর দোহাই দিয়ে মানুষকে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত করছে।

আপনার পছন্দমত বেছে নিন

মন্তব্যগুলো দেখান

XS
SM
MD
LG