অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে হংকংয়ে গণতন্ত্রকামী বিক্ষোভকারীর সমাবেশ


হংকং পুলিশ আজ রবিবার হংকংয়ের অনেক ক’টি স্থানে কাঁদানে গ্যাস ছুঁড়েছে – যখন কিনা হাজার হাজার গণতন্ত্রকামী প্রতিবাদী-বিক্ষোভকারী রাস্তায় নেমেছিলেন, মুখোশ পরা যাবে না ব’লে যে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে সে নিষেধাজ্ঞা অমান্য ক’রেই।

তুমুল ধারায় বৃষ্টি ঝরছিলো তখন – এবং তারই মাঝে ছাতা মাথায় প্রতিবাদী বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় রাস্তায় বিক্ষোভ সমাবেশে নেমেছিলো, দেখা গিয়েছে।

এর আগে শুক্রবারে, হংকং সরকার প্রকাশ্যে, সাধারন্যে- মুখোশ আঁটা অবস্থায় বাইরে বেরুনো যাবেনা ব’লে বৃটিশ আমলের এক জরূরী আইন নতুন ক‘রে বলবত ক’রে নিষেধাজ্ঞা জারী করে। শেষ বার বৃটিশ আমলে ঐ আইনটি বলবত হয়েছিলো ১৯ শ’ ৬৭ সালে দাঙ্গা প্রতিরোধ কল্পে।

ঐ আইনের পুন:বলবতের সূত্র ধ’রে গোটা শহর জূড়ে, প্রতিবাদী বিক্ষোভকারীরা বেরিয়ে পড়েন বিক্ষোভে শামিল হ’তে – এবং এর ভেতরেই কেউ কেউ আবার বের হন ঐ মুখোশ এঁটেই। বিক্ষোভের মাঝে সহিংস সংঘাত হ’তেও দেখা গিয়েছে।

গণতন্ত্রপন্থী বিধায়কেরা আজ রবিবার সকালে হাজির হন গিয়ে হাই কোর্টে- জরুরী ভিত্তিতে নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে ইনজাংশান জারির আর্জি নিয়ে - কিন্তু আর্জি তাঁদের খারিজ হয়ে যায়।

হংকংয়ের নির্বাহী কর্ত্রী ক্যারী ল্যাম বলেন – নতুন ঐ নিষেধাজ্ঞা আইন বলবত হয়েছে শনিবার থেকে এবং মুখ ঢাকা যাবেনা, এই যে আইন, এটা করাই হয়েছে সহিংসতা বন্ধের লক্ষে এবং দাঙ্গাকারিদের নিবৃত্ত ক’রতে। নতুন এই যে আইন – এটা অমান্য ক’রলে শাস্তি হ’তে পারে এক বছর অব্দি কারাবাসের।

XS
SM
MD
LG