অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মিয়ানমারে পূর্ণ প্রবেশাধিকার চান আসিয়ানের নতুন দূত


ব্রুনাইয়ের পররাষ্ট্র বিষয়ক দ্বিতীয় মন্ত্রী এরিওয়ান পেহিন ইউসুফ জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৪ তম অধিবেশনে নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে বক্তব্য রাখছেন- ফাইল ছবি

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর জোট আসিয়ানের বিশেষ দূত হিসেবে মিয়ানমারে  নিযুক্ত ব্রুনাই কূটনীতিক শনিবার বলেছেন, যখন তিনি সংঘাতপূর্ণ  মিয়ানমারে যাবেন, তখন যেন তাকে মুক্তভাবে চলাফেরা ও সব পক্ষের সঙ্গে দেখা করার সুযোগ দেয়া হয়। 

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর জোট আসিয়ানের বিশেষ দূত হিসেবে মিয়ানমারে নিযুক্ত ব্রুনাই কূটনীতিক শনিবার বলেছেন, যখন তিনি সংঘাতপূর্ণ মিয়ানমারে যাবেন, তখন যেন তাকে মুক্তভাবে চলাফেরা ও সব পক্ষের সঙ্গে দেখা করার সুযোগ দেয়া হয়। গত বছর মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী একটি নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতায় আসে।

আসিয়ান কর্তৃক নিয়োগ পাবারকয়েকদিন পর তিনি তার বক্তব্য রাখেন। এরিওয়ান ইউসুফ তার মিয়ানমার সফরের কোন তারিখ ঘোষণা করেননি। মিয়ানমারে এখন বেসামরিক নেতা অং সান সু চি এবং অন্যান্য কর্মকর্তারা পহেলা ফেব্রুয়ারির অভ্যুত্থানের পর থেকে আটক রয়েছেন।

এরিওয়ানকে মানবিক সহায়তা বিষয়ক কার্যক্রম তত্ত্বাবধান, মিয়ানমারে সহিংসতার অবসান ঘটানো এবং সামরিক শাসক ও বিরোধীদের মধ্যে আলোচনা শুরু করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সহিংস ভাবে বিরোধীদের প্রতিবাদ ও বিক্ষোভের মোকাবিলা করা হয়েছে।

ব্রুনাইয়ের রাজধানী বান্দার সেরি বেগওয়ান থেকে ব্রুনাইয়ের পররাষ্ট্র বিষয়ক দ্বিতীয় মন্ত্রী এরিওয়ান সাংবাদিকদের বলেন, "মিয়ানমারে পূর্ব পরিকল্পিত সফর হবে , এবং আমাদের নিশ্চিত করতে হবে যে আমরা যখন সেখানে যাব তখন আমরা ভালোভাবে প্রস্তুত থাকব, জুন মাসের সফরের মত এ সফর যেন না হয় ।”

XS
SM
MD
LG