অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেনের বেসামরিক মানুষের উপর রাশিয়ার নির্বিচার গোলাবর্ষণের আশংকা বাড়ছে


ইউক্রেনের বেসামরিক প্রতিরক্ষা বিভাগের কর্মীরা কিয়েভের একটি স্থানে মলোটোভ ককটেল প্রস্তুত করছেন। ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২২। (ছবি- এপি)
ইউক্রেনের বেসামরিক প্রতিরক্ষা বিভাগের কর্মীরা কিয়েভের একটি স্থানে মলোটোভ ককটেল প্রস্তুত করছেন। ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২২। (ছবি- এপি)

রাশিয়া ইউক্রেনের রাজধানী আয়ত্তে নেওয়ার প্রচেষ্টা দ্বিগুণ করা সত্ত্বেও কিয়েভ রক্ষাকারীরা দখলদারদের বিরুদ্ধে তাদের প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ বজায় রেখেছে। তবে এর ফলে রুশ বাহিনী গুরুত্বপূর্ণ বেসামরিক স্থাপনায় আঘাত হানা বৃদ্ধি করবে এবং নির্বিচারে কামানের গোলাবর্ষণ করবে – এমন আশংকা বেড়ে চলেছে।

ইতোমধ্যেই কিছু কিছু বেসামরিক পরিকাঠামোতে হামলা চালানো হয়েছে। ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে যে, নিকটবর্তী একটি বাঁধ লক্ষ্য করে নিক্ষিপ্ত একটি ক্ষেপণাস্ত্র তারা পথিমধ্যেই ধ্বংস করেছে। বাঁধটিতে ফাঁটল তৈরি হলে নিপার নদীর কাছের নিম্নাঞ্চলে বড় ধরণের বন্যার সৃষ্টি হতে পারত।

কিয়েভের নিকটবর্তী, তেজষ্ক্রিয় বর্জ্য ফেলার স্থানেও রাশিয়ার বাহিনী হামলা করেছে বলে ইউক্রেন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

ভাসিলকিভ শহরের দক্ষিণ-পশ্চিমে একটি তেলের ডিপোতে রাশিয়ার বাহিনী শনিবার হামলা চালায়। একই সময়ে রাজধানী কিয়েভে রাশিয়ার একটি হামলা প্রতিহত করেছে ইউক্রেনের বাহিনী।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে যে, নাশকতাকারী ও শহরে অনুপ্রবেশ করা রাশিয়ার বিশেষ অভিযান পরিচালনাকারী সেনাদলের সাথে লড়াই করে চলেছে ইউক্রেনের বাহিনী। রাশিয়া হামলা শুরুর পর থেকে ইউক্রেন সরকার ১৯৮ জন বেসামরিক মানুষ নিহতের খবর জানিয়েছে, যাদের মধ্যে শিশুও রয়েছে। তবে এই সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে বলেও তারা জানায়। ইউক্রেনের কর্তৃপক্ষ বলছে যে, অন্তত ১,২০০ বেসামরিক মানুষ আহত হয়েছেন।

উত্তর-পূর্ব ইউক্রেনের সুমি ওব্লাস্ট (বিভাগ) - এর ওখতিরকায় রাশিয়ার গোলাবর্ষণে, ৭ বছর বয়সী একটি মেয়েসহ ছয়জন নিহত হয়েছেন বলে, গভর্নর দ্যমিত্রি জিভিতস্কি রবিবার জানান। অপরদিকে, দেশটির দক্ষিণে, ওডেসায় রাশিয়ার বাহিনী ড্রোন হামলা চালিয়েছে বলে, সেখানকার আঞ্চলিক প্রশাসনের প্রধান সেরহিই ব্রাতচুক জানিয়েছেন।

ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী বলে যে, তারা রাশিয়ার হামলাকারীদের ব্যাপক ক্ষতিসাধন করেছে। তারা বলছে যে, তারা রাশিয়ার ১৬টি যুদ্ধবিমান, ১৮টি হেলিকপ্টার, ১০২টি ট্যাংক, ৫০৪টি সাঁজোয়া যান এবং একটি বাক-ওয়ান ক্ষেপণাস্ত্র সরঞ্জাম ধ্বংস করতে সক্ষম হয়েছে। তাদের অনুমান অনুযায়ী তারা রাশিয়ার ৩,০০০ সৈন্যকে হত্যা এবং ২০০ জনকে আটক করেছে। তবে ভিওএ’র পক্ষে এসব তথ্যের সত্যতা যাচাই করতে পারেনি।

রাশিয়ার বাহিনীর গতিরোধ করতে রবিবার সকালে কিয়েভের উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত একটি সেতু উড়িয়ে দিয়েছে ইউক্রেনের সেনারা।

XS
SM
MD
LG