অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

একদা স্বাধীন চিন্তাধারার ভারত এখন আর তত স্বাধীন নেই-ফ্রিডম হাউস


যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত চিন্তন গোষ্ঠী ফ্রিডম হাউস এ বছর ভারতকে মুক্ত দেশের তালিকায় অনেকটাই নামিয়ে দিয়েছে। ওয়াশিংটনভিত্তিক এই চিন্তন গোষ্ঠী তার বার্ষিক রিপোর্টে বলেছে, নরেন্দ্র মোদী ২০১৪ সালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে একদা স্বাধীন চিন্তাধারার দেশটি এখন আর তত স্বাধীন নেই। ২০১৯ সালে মোদী সরকার বিপুল ভোটে জিতে একচ্ছত্র অধিকার কায়েম করার পর ভারতবাসীদের স্বাধীনতা প্রকৃত অর্থে আরও অনেকটা কমেছে।

ফ্রিডম হাউস প্রতিবছর প্রতিটি দেশের রাজনৈতিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক বিষয়ভিত্তিক মূল্যায়ন করে তার রিপোর্ট বের করে। ফ্রিডম হাউসের মানদণ্ড অনুযায়ী সবচেয়ে স্বাধীন দেশ যদি ১০০ পয়েন্ট পায়, তা হলে সবচেয়ে শৃঙ্খলিত ও পরাধীন দেশ পাবে ১ পয়েন্ট। সে দিক থেকে ১০০ পয়েন্টে রয়েছে নরওয়ে, সুইডেন ও ডেনমার্ক এবং ১ পয়েন্টে রয়েছে তিব্বত ও সিরিয়া। ভারত গত বছরেও ৭১ পয়েন্টে ছিল, এ বারে সেটি ৬৭তে নেমে এসেছে।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:51 0:00
সরাসরি লিংক

ফ্রিডম হাউস বলেছে, দিনের পর দিন ভারতের হিন্দু জাতীয়তাবাদী সরকার অসহিষ্ণু হয়ে উঠছে। তারা ভিন্নমত সহ্য করতে পারছে না, গণতন্ত্রের পরোয়া করছে না এবং যারা এই সরকারের কোনো সিদ্ধান্তের বা নীতির বিরোধিতা করছে, তাদের গ্রেপ্তার করে মুখ বন্ধ রাখছে। এইভাবে সমাজকর্মী, বিদ্বজ্জন ও সুশীল সমাজকে মোদী সরকার শিকল পড়াতে চাইছে। হিন্দু জাতীয়তাবাদকে তুলতে গিয়ে সংখ্যালঘুদের, বিশেষ করে মুসলমানদের উপর আক্রমণ চলছে। বিচার ব্যবস্থাতেও নিরপেক্ষতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। তার জ্বলন্ত উদাহরণ সুপ্রিম কোর্টের বিগত প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈকে রাজ্যসভার সদস্য পদ দিয়ে কুদৃষ্টান্ত স্থাপন করা। বাবরি মসজিদ ধ্বংসে অভিযুক্ত ৩২ জনকে বেকসুর খালাস করে দেওয়াও বিচার বিভাগের অবক্ষয়ের আর একটি দৃষ্টান্ত বলে ফ্রিডম হাউস মন্তব্য করেছে।

XS
SM
MD
LG