অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

অসমের নাগরিক পঞ্জি থেকে বাদ পড়া মানুষদের ব্যাপারে উচ্চ পর্যায়ের কমিটি নিয়োগ


assam

অসমের নাগরিক পঞ্জি থেকে বাদ পড়া মানুষদের ব্যাপারে কী করা যায় তা ঠিক করতে ভারত সরকার একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি নিয়োগ করেছে।

হাতে সময় বলতে গেলে আর সপ্তাহ দুয়েক। অসমের খসড়া নাগরিক পঞ্জি থেকে বাদ পড়া ৪০ লক্ষ মানুষের মধ্যে এ পর্যন্ত মাত্র ৬ লক্ষ মানুষ তাঁদের নাম তোলার জন্য তথ্য প্রমাণ সহ কাগজ পত্র জমা দিয়েছেন। গত ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে নতুন করে প্রমাণ দাখিলের কাজ শুরু হয়েছিল, চলবে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এর মধ্যে আর খুব বেশি লোক যে নাম তোলাতে যাবেন না, তা বুঝতে পেরেই কেন্দ্রীয় সরকার এখন থেকে প্রস্তুতি নিচ্ছে। মঙ্গলবার রাতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়ালকে নিয়ে বৈঠকে বসেন। তাঁদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব, রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব এবং আইবি'র ডিরেক্টরও ছিলেন। কমিটিতে এঁরাও থাকছেন। কাজটা অবশ্য সহজ নয়। সামনে সাধারণ নির্বাচন, বিজেপি ক্ষমতায় আসার আগে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, তা রাখতে গেলে বিপুল বাধা আসবে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তো বলেই রেখেছেন, জোর করে এত লোককে বাদ দিলে গৃহযুদ্ধ বাধবে। ওদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শেখ হাসিনাকে কথা দিয়ে রেখেছেন যে জোর করে কাউকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে না। সুতরাং উল্লিখিত কমিটিকে এমন একটা উপায় বের করতে হবে যাতে সাপও মরে, লাঠিও না ভাঙে।

দীপংকর চক্রবর্তী, ভয়েস অফ আমেরিকা, কলকাতা

XS
SM
MD
LG