অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জনগনের কাছে যে কমিটম্যান্ট আছে তা বাস্তবায়নের চেষ্টা করবো-অর্থমন্ত্রী


বৃহস্পতিবার ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট পেশ করা হয়েছে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে

আজ শুক্রবার ভার্চুয়াল মিডিয়ায় সাংবাদিক সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন- জনগনের কাছে যে কমিটম্যান্ট আছে তা বাস্তবায়নের চেষ্টা করবো।প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে আবদুস সালাম বলেন- বাজেটে স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দ আর একটু বাড়ালে ভাল হত।বাজেট নিয়ে সাবিনা আকতার বলেন- আসলে পণ্যের দাম বাড়া সাধারন জনগনের জন্য কষ্টকর।

অর্থনীতিবিদ ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন- এ সময়ে প্রয়োজন ছিল স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি দ্রুত নিয়ন্ত্রণের জন্য অতিরিক্ত বাজেট বরাদ্দ।প্রস্তাবিত বাজেটে জিডিপি অর্জনের

লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৮ দশমিক ২ শতাংশ। বাজেট ব্যয়ের জন্য মোট আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৮২ হাজার ১৬ কোটি টাকা।

৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার বাজেট পেশ করেছেন অর্থমন্ত্রী এতে ১ লক্ষ ৯০ হাজার কোটি টাকা ঘাটতি রয়েছে। এবারের বাজেটে কমতে পারে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম, বাড়তে পারে বিদেশী পণ্য মোবাইল ও বিড়ি সিগারেটের দাম। কালো টাকা বিনিয়োগ করা যাবে আবাসন ও পুজিঁ বাজারে। করোনা মোকাবেলায় অর্থনৈতিক যে ক্ষতি হয়েছে তা পুরানে বাজেট ঘোষনায় অর্থমন্ত্রী বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দিয়েছেন।

ঢাকা থেকে ভয়েস অফ আমেরিকার প্রতিনিধি নাসরিন হুদা বিথীর রিপোর্ট।

XS
SM
MD
LG