অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনায় প্রথম মৃত্যু


করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজন রোহিঙ্গার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে কর্তৃপক্ষ। মৃত ৭১ বছর বয়সী বৃদ্ধ কুতুপালং শরণার্থী শিবিরের সি ব্লকের বাসিন্দা।বাংলাদেশ সরকারের অতিরিক্ত শরনার্থী ত্রান ও প্রত্যাবাশন কমিশনার মোহাম্মদ শামশুদ দৌজা জানান, গত ৩১ মে ক্যাম্পের একটি আইসোলেশন সেন্টারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই বৃদ্ধের মৃত্যু হয়। ওইদিনই তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। পরদিন ১ জুন তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট পাওয়া যায়।

তিনি আরও জানান, ১ জুন পর্যন্ত শরণার্থী শিবিরে মোট ২৯ জন রোহিঙ্গার করোনা পজিটিভ সনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে একজনের মৃত্যু হল। বাকি ২৮ জনের মধ্যে অধিকাংশেরই দ্বিতীয় বার পরীক্ষায়ও পজিটিভ পাওয়া গেছে।মৃত রোহিঙ্গার পরিবারের এক সদস্য জানান, দীর্ঘদিন ধরে তিনি কিডনির সমস্যাসহ বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন।

এদিকে প্রথম একজন রোহিঙ্গা করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর খবরে শরণার্থী শিবিরে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে।

উল্লেখ করা যেতে পারে, কুতুপালং শরণার্থী শিবিরটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় শরণার্থী শিবির। যেখানে প্রায় সাড়ে ৬ লাখ রোহিঙ্গার বসবাস। ক্যাম্পের কোথাও কোথাও প্রতি বর্গকিলোমিটারে ৪০ হাজার থেকে ৭০ হাজার রোহিঙ্গা বসবাস করেন। সেখানে প্রয়োজনীয় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা প্রায় অসম্ভব। এছাড়া তীব্র পানি সংকট সহ নানা সীমাবদ্ধতার কারণে ক্যাম্পটিকে করোনা সংক্রমণের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

কক্সবাজার প্রতিনিধি মোয়াজ্জেম হোসাইন সাকিলের প্রতিবেদন।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:29 0:00
সরাসরি লিংক


XS
SM
MD
LG