অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

স্বাস্থ্যবিদরা চিন্তিত, সংক্রমণ বিশ শতাংশের নিচে নামেনি


বাংলাদেশের জনস্বাস্থ্যবিদরা দারুণভাবে চিন্তিত। কারণ তারা মনে করছেন, করোনা ভাইরাসের লাগাম এখনো টেনে ধরা যায়নি। নামেনি বিশ শতাংশের নিচে সংক্রমণ। সোমবারের চিত্র একই। এদিন আড়াইহাজার মানুষ শনাক্ত হয়েছেন। ৮৭ টি পিসিআর ল্যাবে ১২ হাজার ৮২০ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। যদিও মৃত্যুর প্রকৃত তথ্য ও সংক্রমণ নিয়ে আগাগোড়াই সংশয় ছিল। মার্চ থেকে এ পর্যন্ত যেসব তথ্য উপাত্ত দেয়া হয়েছে তা নিয়ে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা ভিন্নমত পোষণ করে আসছেন। সংক্রমণে যখন ঊর্ধ্বগতি ঠিক তখনই স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক করোনা বিদায় নিচ্ছে এমন তথ্য হাজির করেছেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রাজনৈতিক বক্তব্য দিয়ে মহামারি থামানো যায় না। স্বাস্থ্য দপ্তরের কার্যক্রমেও পরিবর্তন আনা হয়েছে। নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিন বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এখন একটি প্রেস রিলিজের মাধ্যমে শনাক্ত আর মৃত্যুর খবর জানানো হচ্ছে। করোনা সংক্রান্ত জাতীয় টেকনিক্যাল কমিটির কার্যক্রমও স্থবির হয়ে পড়েছে। এখন আর কোন সিদ্ধান্তই তাদের সঙ্গে পরামর্শ করে নেয়া হচ্ছেনা। কোভিড হাসপাতাল বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়ে পরামর্শক কমিটির অনেকেই দ্বিমত পোষণ করেছেন। ঢাকায় ২২ টি কোভিড হাসপাতাল ছিল। এরমধ্যে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ ও রেলওয়ে জেনারেল হাসপাতালে করোনা রোগী ভর্তি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। করোনা রোগীদের জন্য বিভিন্ন হাসপাতালে বেড রয়েছে ১৫ হাজার ২৫৫ টি। রোগী ভর্তি আছেন প্রায় সাড়ে চার হাজার। বাকি বেডগুলো খালি রয়েছে। শতকরা চার শতাংশ রোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এখন চিকিৎসাধীন রয়েছেন এক লাখ ১৩ হাজার ১৪২ জন। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানুষের ধারণা হয়ে গেছে হাসপাতালে গেলে চিকিৎসা সুবিধা পাওয়া যাবে না। অনেকে আবার লোকলজ্জা বা সামাজিকভাবে হেয় হবার ভয়ে তথ্য গোপন করে বাসায় অবস্থান করছেন।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:41 0:00
সরাসরি লিংক


XS
SM
MD
LG