অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতে করোনায় মানুষের মৃত্যুতে বাংলাদেশের দুঃখ প্রকাশ


ভারতে করোনায় মানুষের মৃত্যুতে বাংলাদেশ গভীর দুঃখ ও সমবেদনা প্রকাশ করেছে। বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আনুষ্ঠানিকভাবে এক বিবৃতিতে এই সমবেদনা জানিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, এই সংকটময় সময়ে বাংলাদেশ তার ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশী ভারতের পাশে রয়েছে। ভারতের জনগণের দুর্ভোগ যাতে লাঘব হয় সেজন্য বাংলাদেশের জনগণ প্রার্থনা করছে বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়। করোনা থেকে রেহাই পেতে ভারতকে জরুরি চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠানোর প্রস্তাবও দিয়েছে বাংলাদেশ। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ভারতে করোনা পরিস্থিতি দ্রুত অবনতি হওয়ায় জরুরি ভিত্তিতে ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠানোর প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। এই স্বাস্থ্য সহায়তায় থাকছে ১০ হাজার অ্যান্টি-ভাইরাল ইনজেকশন, মুখে খাবার ওষুধ, ৩০ হাজার পিপিই, কয়েক হাজার জিংক, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন সি ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় ওষুধ।

ভারতে করোনায় মানুষের মৃত্যুতে বাংলাদেশের দুঃখ প্রকাশ
please wait

No media source currently available

0:00 0:01:56 0:00
সরাসরি লিংক

ঢাকায় এখন থেকে করোনা চিকিৎসায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে রোগীদের সেবা দেবে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। করোনা রোগীর বাসা থেকে ফোন এলেই ডাক্তারসহ অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছে যাবে। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কর্ণধার ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, মানুষের পাশে দাঁড়ানোর কোনো বিকল্প নেই। বাড়ি বাড়ি চিকিৎসক দল পাঠানোর অন্যতম উদ্দেশ্য হচ্ছে, হাসপাতালগুলোর ওপর যাতে চাপ না বাড়ে। ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, গণস্বাস্থ্যের ভ্রাম্যমান মেডিকেল টিম তাৎক্ষণিকভাবে যে ওষুধ দেবে তার জন্য কোনো টাকা নেয়া হবে না। তবে করোনার পরীক্ষাসহ অন্যান্য যেসব পরীক্ষা হবে তার জন্য অর্ধেক মুল্য নেয়া হবে। তাছাড়া গণস্বাস্থ্যের হাসপাতালেও করোনা ইউনিট খোলা হয়েছে। সেখানেও সেবা পাওয়া যাবে।

ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস বাংলাদেশে অবস্থানরত নিজ দেশের নাগরিকদের জন্য স্বাস্থ্য ও ভ্রমণ সতর্কতা জারি করেছে। এতে বলা হয়েছে, প্রত্যেক নাগরিককে সতর্ক থাকতে হবে। ব্যক্তিগত ফোন সার্বক্ষণিকভাবে চার্জ দিয়ে রাখতে হবে।

ওদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮৮ জন। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১১ হাজার ৩৯৩ জন। এ সময় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৩৪১ জন।

XS
SM
MD
LG