অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাশিয়া থেকে ভ্যাকসিন আমদানির লক্ষ্যে জরুরি ভিত্তিতে চুক্তি চায় বাংলাদেশ


রাশিয়া থেকে যতোটা সম্ভব বেশি সংখ্যায় করোনা ভ্যাকসিন আমদানির লক্ষ্যে দুই দেশের মধ্যে জরুরি ভিত্তিতে একটি চুক্তি সম্পাদন করতে চায় বাংলাদেশ। এ লক্ষ্যে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে জানিয়েছে যে, চুক্তি হলে রাশিয়া থেকে এক মাসের মধ্যে প্রথম চালানে ১০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন পাবে বাংলাদেশ। তবে চুক্তি সম্পাদনের আগে মূল্য নির্ধারণ, কতোটা ভ্যাকসিন রাশিয়া দিতে পারবে- এসব প্রক্রিয়াগুলো নিয়ে কাজ চলছে বলে সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।
বাংলাদেশ ইতিমধ্যে অবশ্য চীন ও রাশিয়াকে তাদের ভ্যাকসিন বাংলাদেশের সাথে যৌথভাবে উৎপাদনের অনুমতি দিয়েছে। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, মে দিবসের ৫ দিনের ছুটির মধ্যেও চীন ১৩ মে’র মধ্যে বাংলাদেশকে ৫ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন পাঠাবে বলে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক আশাবাদী, ১০ মে’র মধ্যে বাংলাদেশ চীনের ভ্যাকসিন পেয়ে যাবে।

রাশিয়া থেকে ভ্যাকসিন আমদানির লক্ষ্যে জরুরি ভিত্তিতে চুক্তি চায় বাংলাদেশ
please wait

No media source currently available

0:00 0:01:42 0:00


এদিকে, বাংলাদেশে অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিন তৈরির বিষয়ে ভারতের সিরাম ইন্সস্টিটিউট এবং বাংলাদেশের বেক্সিমকো ফার্মার মধ্যে আলাপ-আলোচনা শুরু হয়েছে। তবে বেক্সিমকো জানিয়েছে, সিরামের পক্ষ থেকে এখনও কোন আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব তারা পাননি। বাংলাদেশের বেসরকারি ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানী ’রেনাটা’ বাংলাদেশে মর্ডানার করোনা ভ্যাকসিন আমদানির জন্য বাংলাদেশের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছে। বাংলাদেশে স্বাস্থ্য দপ্তরের প্রধান এর সত্যতা স্বীকার করেছেন।

XS
SM
MD
LG