অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ঢাকার দু্ই সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী প্রচারণা মধ্যরাত থেকে বন্ধ, ভোট শনিবার


dcc logo

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা নির্বাচনী জ্বরে রীতিমতো কাঁপছে। দুই সিটিতে ভোট হবে শনিবার। আওয়ামী লীগ-বিএনপির লড়াইয়ে ভোট জমে উঠেছে। আতঙ্ক আর উদ্বেগেরও কমতি নেই। আজ মধ্যরাত থেকে প্রচারণা বন্ধ হয়ে যাবে। নির্বাচন কমিশন বলছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে, পরিবেশ সুন্দর।

আওয়ামী লীগ বলেছে, তারা কেন্দ্র পাহারা দেবে। দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের অভিযোগ করেছেন, বিএনপি ১৭০টি কেন্দ্র দখল করবে। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ধারণা, গত সংসদ নির্বাচনে যা ঘটেছিল এবারও তাই ঘটতে যাচ্ছে এমন আলামত পরিষ্কার।

৪০ হাজার আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য নির্বাচনে দায়িত্ব পালন করবেন। শতাধিক ম্যাজিস্ট্রেটকে সতর্ক রাখা হয়েছে। এত সবের মধ্যেও ভোটারদের মধ্যে আস্থার পরিবেশ তৈরি হয়নি। ভোটাররা এখনো নিশ্চিত নয় ভোটের পরিবেশ নিয়ে। চারজনের সঙ্গে কথা বলেছি, এর মধ্যে তিনজনই পরিবেশের কথা বলেছেন। একজন বলেছেন, ভোট দিতে গিয়ে কি হবে?

বিদেশী কূটনীতিকরা এই নির্বাচন নিয়ে তাদের প্রত্যাশার কথা জানিয়েছেন। যদিও সরকারের তরফে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করা হয়েছে। ঢাকাস্থ যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের ফেসবুক পেজে শান্তিপূর্ণ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন প্রত্যাশা করা হয়েছে। বৃটিশ দূতাবাসের তরফেও অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের কথা বলা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের কূটনীতিকরা চার মেয়র প্রার্থীর সঙ্গে আলাদাভাবে বৈঠক করেছেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। বলেছেন, বিদেশী রাষ্ট্রদূতরা কোড অব কন্ডাক্ট না মানলে সরকার তাদের ফিরে যেতে বলবে।

ওদিকে, পুলিশী অভিযানে পাড়া-মহল্লায় এক ধরনের আতঙ্ক বিরাজ করছে। পুলিশ বলছে, তারা ভোটের আগে দাগী আসামীদের গ্রেপ্তার করবে।

বিরোধী বিএনপি বলেছে, পরিকল্পিতভাবে আতঙ্ক তৈরি করা হচ্ছে। যাতে করে ভোটাররা কেন্দ্রমুখী না হন।

শেষ মুহূর্তে ঢাকা উত্তরের বিএনপি প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের নির্বাচনী প্রচারণায় হামলা হয়েছে। এতে দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ আহত হয়েছেন।

please wait

No media source currently available

0:00 0:02:10 0:00
সরাসরি লিংক



XS
SM
MD
LG