অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশসহ করোনাকালে বাক-স্বাধীনতা নিয়ে হয়রানি ও প্রতিহিংসামূলক আচরণ


করোনা সংক্রান্ত বিষয়ে সরকারের কার্যক্রমের সমালোচনা এবং কথিত ভূয়া তথ্য দেয়ার অজুহাতে স্বাধীন মত প্রকাশ ও বাক-স্বাধীনতার ওপরে যে কঠিন আঘাত দেয়া হচ্ছে- বাংলাদেশসহ এশিয়ার কয়েকটি দেশে তাতে গভীর উদ্বেগ ও শংকা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাই-কমিশনার মিশেল বিসলে জেনেভা থেকে সদ্য প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেছেন, বাংলাদেশসহ এশিয়ার কয়েকটি দেশ করোনা সংকটের সময়কালে স্বাধীন মতামত ও বাক-স্বাধীনতার ওপরে যে কঠোর আঘাত হেনেছে তাতে তিনি গভীরভাবে শংকিত ও উদ্বিগ্ন। তিনি বলেছেন, স্বাধীন মতামত প্রকাশের ব্যাপারে যথাযথ নয় এমন আচরণও করা হচ্ছে। তিনি বলেছেন, ভূয়া তথ্য প্রকাশ করা হচ্ছে এমন অভিযোগে এবং সরকারের সমালোচনা, জনগণের বৈধ অভিমত ও বিতর্ক কঠিন হাতে দমনে ইতিমধ্যে অনলাইন মাধ্যমের ব্যাপারে শক্ত আইন তৈরি রাখা এবং প্রয়োগ করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সম্পর্কে জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাই-কমিশনার ওই বিবৃতিতে বলেছেন, করোনা সংক্রমণ সংক্রান্ত বিষয়ে সরকারের কার্যক্রমের সমালোচনা এবং কথিত ভুল তথ্য প্রদানের অভিযোগে গত ৩ মাস ধরে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনে অনেক মানুষকে গ্রেফতার এবং অনেকের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্যসেবা না পাওয়া, অপ্রতুল স্বাস্থ্য ব্যবস্থাদি এবং ত্রাণ কার্যক্রমে অনিয়ম-দুর্নীতির ব্যাপারে অভিযোগ ও মতামত প্রকাশের জন্য মাঠ পর্যায়ের সাংবাদিক, মানবাধিকার সংক্রিয়বাদী, অনেক পেশাদার স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এবং সাধারণ মানুষের প্রতি হয়রানি ও প্রতিহিংসামূলক আচরণ করা হয়েছে। কোন কোন ক্ষেত্রে তাদের শারীরিক নির্যাতনের ঘটনাও ঘটেছে।
করোনাকালে মত প্রকাশের স্বাধীনতা সম্পর্কে বিশ্লেষণ করেছেন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ বা টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান এবং প্রবীণ সাংবাদিক রিয়াজউদ্দীন আহমেদ।

please wait

No media source currently available

0:00 0:07:00 0:00


XS
SM
MD
LG