অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা ঊর্ধ্বমুখী


বাংলাদেশে গত ৮ই মার্চ প্রথম তিন জন করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের সংক্রমণ এবং মৃত্যুর সংখ্যা দিন দিন ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে। সরকারের সিনিয়র স্বাস্থ্য কর্মকর্তা অধ্যাপক ডাঃ নাসিমা সুলতানা বুধবার এক অনলাইন ব্রিফিং এ জানিয়েছেন, বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ১৯ জনের এবং সংক্রমিত হয়েছেন ১,১৬২ জন।

দেশে প্রথম করোনা সংক্রামণের পর গত সাড়ে ৯ সপ্তাহের মধ্যে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত এবং সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা ছিল সর্বোচ্চ। ডাঃ নাসিমা সুলতানা জানিয়েছেন, এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৬৯ জনে এবং আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭,৮২২ জনে। তিনি বলেন গত এক দিনে সুস্থ হয়েছেন আরো ২১৪ জন যার ফলে দেশে এ পর্যন্ত মোট সুস্থ করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩,৩৩১ জনে।

পোশাক শিল্প মালিকদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএ জানিয়েছে, এ যাবত সারা দেশে ৪৮ জন পোশাক শিল্প শ্রমিকের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে এবং অপর ৭ জনের করোনা উপসর্গ থাকায় তাঁদের পরীক্ষার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সংস্থাটি জানিয়েছে করোনা আক্রান্ত শ্রমিকদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এদিকে, বাংলাদেশের বেসরকারি প্রতিষ্ঠান চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশন দেশে করোনাভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্স উন্মোচন করেছে। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে এক প্রেস বিজ্ঞতিতে জানানো হয়েছে, অণুজীব বিজ্ঞানী সেঁজুতি সাহার নেতৃত্বে আট সদস্যের এক গবেষক দল জিনোম সিকোয়েন্স উন্মোচনের কাজটি করেছেন। সংস্থাটি জানিয়েছে, এই জিনোম সিকোয়েন্সের মাধ্যমে ভাইরাসটির গতি প্রকৃতি নির্ণয় করতে পারবেন গবেষকরা।

বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, বিল এন্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন ও চ্যান–জাকারবার্গ বায়ো–হাব এই গবেষণা কাজে সহায়তা করেছে বলে সংস্থাটির পক্ষ থেকে জানানো হয়।

please wait

No media source currently available

0:00 0:02:00 0:00
সরাসরি লিংক


XS
SM
MD
LG