অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ঢাকা থেকে বিশেষ বিমানে কলকাতায় ফিরেছেন ১৬৯ জন


ভারতের পশ্চিমবঙ্গে আজ সোমবার সকালে কলকাতা থেকে একটি বিশেষ বিমানে করে ঐ রাজ্যে আটকে পড়া ৩৩ জন বাংলাদেশি ঢাকায় ফিরে গিয়েছেন এবং সেই একই বিমানে ঢাকা থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় আটকে পড়া ভারতীয় নাগরিকেরা কলকাতায় ফিরে এসেছেন। তাঁদের বেশিরভাগই পশ্চিমবঙ্গের নানা জেলা থেকে পড়তে বা বেড়াতে, অথবা কোন কাজে বাংলাদেশের নানা জায়গায় গিয়েছিলেন। লকডাউনের ফলে তাঁরা আটকে পড়েন। বন্দে ভারত প্রকল্প অনুযায়ী তাঁদের দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।

আজ কলকাতায় আসা ১৬৯ জন নাগরিকের মধ্যে ৭৬ জন ছাত্র ছাড়াও বেশ কিছু বয়স্ক মানুষ, পর্যটক এবং একজন সন্তানসম্ভবা মহিলা রয়েছেন। তাঁদের সকলকে কলকাতায় যথাবিহিত কোয়ারেন্টিনে রাখার পর নিজ নিজ জায়গায় ফেরত পাঠানো হবে।

এদিকে ঘূর্ণিঝড় আম্পান এখন পশ্চিমবঙ্গের অদূরে বঙ্গোপসাগরের পশ্চিম দিকে এবং মধ্যভাগে অবস্থান করে শক্তি সঞ্চয় করছে। সেটির মোকাবিলায় পশ্চিমবঙ্গ সরকার বেশ কিছু সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে। কেন্দ্রীয় স্তরে কী ভাবে ঐ সামুদ্রিক ঘূর্ণিঝড়ের মোকাবিলা করা যায় তা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আজ বিকেলে তাঁর মন্ত্রিসভার সদস্যদের নিয়ে বিশেষ বৈঠকে বসেছিলেন। সেখানে কী কী প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া যায় তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে এবং ঠিক হয়েছে যে উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে সমস্ত লোককে যথাসম্ভব নিরাপদ জায়গায়, নিরাপদ দূরত্বে সরিয়ে দেওয়া হবে। এইভাবে বিগত ঘূর্ণিঝড় ফণির সময়ও বহু মানুষের প্রাণ বাঁচানো গিয়েছিল। ওড়িশা সরকার আজ কেন্দ্রকে অনুরোধ করেছে, ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডব যথেষ্টই বেশি হতে পারে বলে আগামী তিন দিন যেন পরিযায়ী শ্রমিকদের ট্রেনে করে ওড়িশার ওপর দিয়ে কোন জায়গায় না পাঠানো হয়, কারণ ঘূর্ণিঝড়ের ফলে তাঁদের প্রাণ সংশয় হতে পারে। এ বিষয়ে এখনও কোন সিদ্ধান্ত হয়নি, তবে বিষয়টি বিবেচনাধীন রয়েছে বলে রেলমন্ত্রক জানিয়েছে।

please wait

No media source currently available

0:00 0:02:07 0:00
সরাসরি লিংক


XS
SM
MD
LG