অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের নতুন রেকর্ড


বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ও আক্রান্তে নয়া রেকর্ড হয়েছে। এই সময়ে ২২ জন মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ১৭৭৩ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৮ হাজার ৫১১ জন। মৃত্যু বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪০৮। গত ৮ই মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়।

জাতিসংঘের অভিবাসন বিষয়ক এজেন্সি ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন (আইওএম) দেশে ফেরত আসা ও খুব বেশি ঝুঁকিতে থাকা বাংলাদেশি অভিবাসীদের জন্য তাৎক্ষনিক খাদ্য, আশ্রয় ও স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার তাগিদ দিয়েছে। সংস্থাটির তরফে বলা হয়েছে, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নানা রকম শ্রমে নিয়োজিত রয়েছেন কয়েক লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক। এসব শ্রমিক তাদের আয়ের উৎস হারিয়েছেন। আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন। তাই তাদের অনেকেই দেশে ফিরতে চান না। এই অবস্থায় আইওএম ফেরত আসা প্রবাসীদেরকে তাৎক্ষণিক অর্থ সাহায্য দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মানসিক কাউন্সেলিং ও দীর্ঘ মেয়াদে সমাজে একীভূত হতে সমর্থন দেয়ার কথাও জানিয়েছে।

ওদিকে বাংলাদেশের ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ রেমডেসিভির বাজারজাত করণের ঘোষণা দিয়েছে। এন্টিভাইরাল ওষুধ রেমডেসিভির সম্প্রতি কোভিড-১৯ চিকিৎসায় যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থার জরুরী ব্যবহারের অনুমোদন পেয়েছে। বেক্সিমকো ফার্মার প্রধান নির্বাহী নাজমুল হাসান এমপি বলেছেন, বহুল প্রতীক্ষিত এই ওষুধের জেনেরিক সংস্করণ বাজারজাত করণে বেক্সিমকো ফার্মাই বিশ্বে প্রথম। যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক গিলিয়াড সাইন্সেস রেমডেসিভির উদ্ভাবক। কোভিড-১৯ এ গুরুতর অসুস্থ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর ক্ষেত্রে এটি ব্যবহারের অনুমতি দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার এক অনুষ্ঠানে বেক্সিমকো ফার্মার কর্মকর্তারা পরীক্ষামূলকভাবে তৈরি ওষুধ রেমডেসিভির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের হাতে তুলে দেন।

বেক্সিমকো ফার্মা যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া, কানাডাসহ বিশ্বের ৫০টিরও বেশি দেশে ওষুধ রপ্তানি করে থাকে।

please wait

No media source currently available

0:00 0:02:03 0:00
সরাসরি লিংক


XS
SM
MD
LG