অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিশ্বে করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা দশ হাজার ছাড়িয়ে গেছে


বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত রোগীর মৃতের সংখ্যা এখন দশ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। কভিড নাইন্টিন নামে পরিচিতি এই করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত বিশ্ব ব্যাপী দু'লক্ষ চুয়াল্লিশ হাজার পাঁচশো জন আক্রান্ত হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্ণিয়ার গভর্ণর গ্যাভিন নিউসম গতকাল যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিম উপকূলের ঐ রাজ্যের চল্লিশ লক্ষ লোককে, করোনা ভাইরাস যা কিনা COVID-19 নামেও পরিচিত তাকে পরাস্ত করতে নিজেদের ঘরে থাকতে বলেছেন।ক্যালিফোর্নিয়ায় ৯৫৮ জন আক্রান্ত এবং ১ জনের মৃত্যর পর নিউসম এই বাধ্যতামূলক নির্দেশ দেন। নিউসন কংগ্রেসের কাছে এই চিকিৎসা বিষয়ক সংকট মোকাবিলার জন্য ফেডারেল তহবিল থেকে একশো কোটি ডলার চেয়েছেন।

এদিকে, নিউ ইয়র্ক সিটির মেয়র তাঁর শহরে সামরিক বাহিনী মোতায়েনের জন্য প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন । তিনি বলেন যে, নিউ ইয়র্ক সিটি করোনা ভাইরাসের লড়াইয়ে একদম সম্মুখ সমরে রয়েছে।

ক্ষুব্ধ মেয়র বিল দে ব্লাসো বলেন, পরিহাসের বিষয় হচেছ যে নিউ ইয়র্কের নিয়তি এখন যার হাতে তিনি নিজেই নিউ ইয়র্কের অধিবাসী ছিলেন কিন্তু এখন তিনি সেই শহরটিকে প্রতারণা করছেন যে শহরটি থেকে তিনি এসছেন।

ট্রাম্প বুধবার নিউ ইয়র্ক সিটিতে এক হাজার আসন বিশিষ্ট নৌবাহিনীর জাহাজে একটি হাসপাতাল মোতায়েনের কথা ঘোষণা করেন তবে সেই জাহাজটি আগামী মাসের আগে সেখানে গিয়ে পৌঁছুবে না। অনুমান করা হচ্ছে এতে করোনা ভাইরাসে যারা আক্রান্ত নয় , তাদের চিকিৎসা করা হবে যাতে করে ঐ শহরের হাসপাতালের উপর থেকে বোঝা লাঘব করা যায়। ঐ সব হাসপাতাল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগিদের নিয়ে হিমসিম খাচ্ছে। গোটা নিউইয়র্ক রাজ্যে এবং শহরে এখন নিশ্চিত ভাবে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা যুক্তরাষ্ট্রের যে কোন রাজ্যের তূলনায় বেশি। গোটা রাজ্যে এখন এই রোগে আক্রান্তদের সংখ্যা সাড়ে সাত হাজার ।

মেয়র বলেছেন, নিউ ইয়র্ক সিটিতেই এখন এই রোগে আক্রান্তদের মোট সংখ্যা হচ্ছে ৩, ৬১৫ জন এবং মৃতের সংখ্যা ২২ জন। এই সংখ্যা বুধবারের সংখ্যার তুলনায় দ্বিগুণ্ । প্রায় ১৭০ জন এখন নিবিড় পরিচর্যায় রয়েছেন।

নিউ ইয়র্কে এই রোগ পরীক্ষা সহজলভ্য হওয়ায় সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা যে ক্রমশই বাড়ছে সে কথা বোঝা যায়। দ্য ব্লাসিও সতর্ক করে দেন যে, ফেডারেল সরকারের সহায়তা ছাড়া , কয়েক সপ্তার মধ্যে পরিস্থিতি অস্বাভাবিক রকমের কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।

তবে এর আগে নিউ ইয়র্কের গভর্ণর অ্যান্ড্রু কিউমো সেই রাজ্যের রাজধানী আলব্যানীতে সংবাদদাতাদের বলেন, ভাইরাস সংক্রান্ত ভুল তথ্য এবং ভীতি পরিস্থিতিকে আরো জটিল করে তুলছে।

অন্যদিকে এই করোনা ভাইরাসে ইটাটিতে মৃতের সংখ্যা এরই মধ্যে চীনকে ছাড়িয়ে গেছে। গতকাল ইটালি জানিয়েছে, সেখানে মৃতের সংখ্যা ৩৪০৫ জন।

XS
SM
MD
LG