অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্র ঢাকায় থাকা নাগরিকদের ফেরাতে বিশেষ ফ্লাইট সুবিধা চেয়েছে


করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহতার আশঙ্কায় ঢাকায় থাকা যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের সরিয়ে নিতে স্পেশাল ফ্লাইট সুবিধা চেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস। মঙ্গলবার এ নিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক বৈঠকে রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার ঐ সুবিধা নিশ্চিতে সরকারের সহযোগিতা চান।


তবে কবে নাগাদ ঐ ফ্লাইটটি আসতে পারে এবং তাতে কতজন আমেরিকান ফিরবেন তা তিনি খোলাসা করেননি। করোনা বিষয়ক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ফোকাল পয়েন্ট অতিরিক্ত সচিব ডা. খলিলুর রহমানের সঙ্গে জরুরি বৈঠক করেন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতসহ ৬ দূত।

সেগুনবাগিচার ঐ বৈঠকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত রেন্সজে তেরিঙ্ক জানান, ইউরোপের ৯ জন নাগরিক তাদের নিজ নিজ দেশে ফিরতে থাই এয়ারওয়েজের ফ্লাইটে বুকিং দিয়েছিলেন। কিন্তু থাই এয়ার জানিয়েছে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ রোধে তারা তাদের সব ফ্লাইট বন্ধ করতে যাচ্ছে। ফলে ঐ ইউরোপীয়ানদের গন্তব্যে ফেরাতে দূতাবাসগুলোকে বিকল্প খুঁজতে হচ্ছে। বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ দূতদ্বয় ছাড়াও বৃটেন, জাপান, ইতালি ও নরওয়ের রাষ্ট্রদূত অংশ নেন।

উল্লখ্য, বৈঠকে কূটনীতিকদের বলা হয়েছে, করোনার সংক্রমণ রোধে গোটা দেশকে কার্যত লকডাউন করা হয়েছে। বিদেশি কূটনীতিকদের বিষয়ে সরকারের বিশেষ নজর রয়েছে। কূটনীতিক ও তাদের পরিবারের সদস্যদের কেউ করোনা আক্রান্ত হলে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালসহ ৩টি হাসপাতালে চিকিৎসা সেবার বিশেষ ব্যবস্থা থাকবে।
ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী'র রিপোর্ট।

XS
SM
MD
LG