অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

চট্টগ্রামে আরো দুইজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত


বাংলাদেশের চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত আরো দুইজন রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে চট্টগ্রামে সাতজন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছেন। চট্টগ্রামের ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল এন্ড ইনফেকসাস ডিজিজেজ- বিআইটিআইডিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে এ পর্যন্ত ৫১৪ জনের নুমনা সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে ৭জনের শরীরে কোভিড-১৯ পজেটিভ পাওয়া যায়। নতুন যে দুই জনের শরীরে করোনা ভাইরাস পজেটিভ পাওয়া গেছে, তাদের একজনের বাসা চট্টগ্রামের ফিরিঙ্গীবাজার এলাকায় এবং অপরজনের খুলশী ইস্পাহানী রেলগেইট এলাকায়। এরা পেশায় একজন কাঠ ব্যবসায়ী অপরজন কাঁচাবাজারে সবজি বিক্রেতা। তাদের চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে। সংক্রামন ঠেকাতে আক্রান্তদের আশপাশে ১৯টি বাড়ি লক ডাউন করা হয়েছে।
এদিকে রাঙ্গামাটির দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় হাম রোগে আক্রান্ত আদিবাসী পাঁচ শিশুকে ১৮দিন চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার পর তারা সুস্থ হয়ে উঠেছেন। সেনাবাহিনীর তত্বাবধানে সুস্থ হয়ে উঠা এসব শিশুদের আজকে তাদের পরিবারের কাছে তুলে দেয়া হয় বলে জানান চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপতালেল পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল এস.এম হুমায়ুন কবির।
চরম দু:সময়ে হামে আক্রান্ত আদিবাসি এসব শিশুদের উদ্ধার করে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে তোলায় আনন্দে আত্মহারা শিশুদের পরিবার।

এদিকে লকডাউন পরিস্থিতি সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্যকরে রাস্তায় যানবাহন বের করার অভিযোগে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ ১৪টি যানবাহন আটক এবং ২৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছে। এছাড়া জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীও সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য যারা রাস্তায় বের হচ্ছেন, অযথা ঘোরা ফেরা করছেন তাদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রেখেছেন।

XS
SM
MD
LG