অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি: আক্রান্ত ১২৩১, মৃত ৫০ জন


বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে একজন প্রতিভাবান চিকিৎসক প্রাণ হারালেন। সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মইন উদ্দিন বুধবার সকালে ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে মারা গেছেন। তিনিই বাংলাদেশের প্রথম চিকিৎসক করোনার সঙ্গে লড়াই করে হেরে গেলেন। গত ৫ই এপ্রিল তার শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। ৭ই এপ্রিল তাকে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে আইসিইউ ও ভেন্টিলেশন সুবিধা না থাকায় তাকে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে আনা হয়। সেখানেই তিনি মারা যান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই চিকিৎসকের অকাল মৃত্যুতে গভীর দুঃখ ও শোক প্রকাশ করেছেন। এই চিকিৎসকের পরিবারের দায়িত্ব সরকার নেবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক।

উল্লেখ্য, করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এ পর্যন্ত ৫৭ জন চিকিৎসক। বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনলাইন ব্রিফিংয়ে বলা হয়েছে গত ২৪ ঘন্টায় ২১৯ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। মারা গেছেন চার জন। এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ৫০ জনে। দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২৩১ জনে। সুস্থ হয়েছেন ৪৯ জন। রাজধানীর ইনসাফ বারাকা কিডনি হাসপাতালে ৯ চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় লকডাউন করা হয়েছে। ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক অবরোধ করে পোশাক শ্রমিকরা বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন। করোনা ভাইরাসের কারণে শত শত কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে। ক্রয়াদেশ বাতিল হয়েছে ৩.৮ বিলিয়ন ডলারের। গার্মেন্টস কারখানায় ৪১ লাখ শ্রমিক কাজ করেন। লকডাউনের পর লাখ লাখ শ্রমিক বাড়ি ফিরে গেছেন। অনেকেই বেতন বা ক্ষতিপূরণ ছাড়াই ফিরে যেতে বাধ্য হয়েছেন।

ওদিকে এক আন্তঃমন্ত্রণালয়ের বৈঠক শেষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন জানিয়েছেন, যেসব বাংলাদেশি কর্মহীন হয়ে দেশে ফিরছেন তাদের সবাইকে সরকার আর্থিক সাহায্য দেবে। প্রাথমিকভাবে তাদেরকে ৫/৭ লাখ টাকা করে ঋণ দেয়া হবে। বিশেষ করে কৃষিকাজে তাদেরকে উৎসাহিত করা হবে। মন্ত্রী জানান সৌদি আরব থেকে ৩৬৬ জন বাংলাদেশি ফিরেছেন। এর মধ্যে জেলে থাকা ২৩৪ জন, ১৩২ জন ওমরাহ করতে গিয়েছিলেন। কুয়েত থেকে দুই ধাপে ৩৪৭ জন ফিরেছেন। যারা ফিরছেন তাদের প্রত্যেককে বাড়ি যাওয়া খরচ বাবদ বিমান বন্দরেই পাঁচ হাজার টাকা সহায়তা দেয়া হবে।

XS
SM
MD
LG