অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে করোনা আক্রান্ত ৪৬৮৯, মৃত ১৩১ জন


বাংলাদেশে করোনা রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। তবে মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৫০৩ জন। এ নিয়ে আক্রান্ত হলেন ৪৬৮৯ জন। মারা গেছেন ৪ জন। তাদের সবাই ঢাকার। এ পর্যন্ত ১৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। সারা দেশে ২৩৪ জন পুলিশ সদস্য করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ভোলা ও নওগাঁ জেলায় প্রথম রোগী শনাক্ত হয়েছে। নরসিংদীতে প্রথম একজন করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে শুক্রবার। ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, নরসিংদী ও কিশোরগঞ্জেই রোগী শনাক্ত হচ্ছে বেশি।

সিলেটে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন জেনে একজন মহিলা হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান। পরে স্বাস্থ্যকর্মীরা তাকে খুঁজে বের করে করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য নির্ধারিত শহীদ শামসুদ্দিন হাসাতালে ভর্তি করেন। করোনা আক্রান্ত একজন চিকিৎসককে এয়ার এম্বুলেন্সে করে খুলনা থেকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়েছে।
করোনা পরীক্ষার কিট উৎপাদনে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র সফল হয়েছে বলে দাবি করেছেন এর প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। আগামীকাল সকালে সরকারের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানসহ আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর কাছে নমুনা কিট হস্তান্তর করা হবে বলে জানিয়েছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র।
লকডাউনের মধ্যে সীমিত পরিসরে আদালতের কার্যক্রম চালানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার আদালত এবং হাইকোর্ট বিভাগের একটি বেঞ্চ জরুরি বিষয়াদি নিস্পত্তি করবেন। সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, প্রত্যেক জেলা ও মহানগর এলাকার দায়রা জজকে ছুটিকালীন সময়ে তাদের সুবিধা মতো প্রতি সপ্তাহে যে কোন দুই দিন জরুরি জামিন শুনানির ব্যবস্থা করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আদালত চলাকালে সামাজিক দুরত্ব কঠোরভাবে বজায় রাখার নির্দেশনাও রয়েছে।
রমজানে তারাবি’র নামাজ বাড়িতে পড়ার জন্য বলা হয়েছে। কেউ এ আদেশ অমান্য করলে ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলা হয়েছে সরকারের তরফে। ইফতার মাহফিলেও বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। কাল থেকে বাংলাদেশে রমজান শুরু হচ্ছে।

XS
SM
MD
LG