অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

চীন আমাকে নির্বাচনে পরাজিত করতে সাধ্যমত সব কিছুই করবে: প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প গতকাল বলেন, তিনি মনে করেন চীন যে ভাবে করেনাভাইরাসের বিষয়টা নিয়ে কাজ করেছে তাতে প্রমাণ পাওয়া যায় যে তাঁকে নভেম্বর মাসে পুননির্বাচনে পরাজিত করতে চীন সাধ্যমত সব কিছুই করবে।

তাঁর ওভাল অফিসে রয়টারকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প চীন সম্পর্কে কড়া কথা বলেন এবং বলেন যে, এই সংক্রামক ব্যাধিকে নিয়ে তিনি বেইজিং সরকারের বিভিন্ন পরিণতি সম্পর্কে ভেবে দেখছেন। তিনি বলেন, "আমি অনেক কিছুই করতে পারি"।

রয়টারের হিসেব অনুযায়ী এই মহামারিতে যুক্তরাষ্ট্রে যে অন্তত ষাট হাজার লোক প্রাণ হারিয়েছে এবং যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিকে মহামন্দায় ফেলে দিয়ে তাঁর পুননির্বাচনের প্রত্যাশাকে সমস্যায় ফেলেছে তার জন্য ট্রাম্প চীনকে দোষারোপ করেই চলেছেন। এই রিপাবলিকান প্রেসিডেন্টকে প্রায়শই দায়ী করা হয় যে, তিনি এই সংক্রামক ব্যাধি সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্রকে আগেভাগে প্রস্তুত করেননি। তিনি বলছেন, তিনি মনে করেন করোনাভাইরাস সম্পর্কে বিশ্বকে অবহিত করার ব্যাপারে চীনের অনেক বেশি সক্রিয় হওয়া উচিৎ ছিল।

ট্রাম্পকে যখন জিজ্ঞেষ করা হয় যে, তিনি চীনের উপর শুল্ক আরোপ করা কিংবা ঋণ মওকুফ করা বাতিল করার কথা ভাবছেন কীনা, তিনি সুনির্দিষ্ট ভাবে কিছু জানাননি।

ট্রাম্প বলেন, আমাকে এই প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পরাজিত করতে চীন সব কিছুই করতে পারে। তিনি বলেন যে, তিনি বানিজ্য ও অন্যান্য বিষয়ে চীনের উপর যে চাপ দিচ্ছেন সেটা কমিয়ে আনার জন্য, তারা চাইছে এই নির্বাচনে তাঁর প্রতিপক্ষ ডেমক্র্যাটিক দলের জো বাইডেন জয়ী হন। গতকালের ঐ সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেন, তিনি ঐ জনমত জরিপ বিশ্বাস করেন না যেখানে দেখা গেছে হোয়াইট হাউজে প্রবেশের এই প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বাইডেন এগিয়ে আছেন। তিনি এ কথাও বলেন যে, তিনি মনে করেন না তাঁর করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলার বিষয়টিকে কেন্দ্র করে এই নির্বাচন কোনরকম গণভোট হবে তবে তিনি বলেন তিনি অবাক হচ্ছেন যে সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট ভালই করছেন।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ঐ সাক্ষাৎকারে আরো বলেন যে, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এর সঙ্গে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বানিজ্য ঘাটতি কমিয়ে আনার ব্যাপারে যে চুক্তি সই করেছিলেন, তা করোনাভাইরাসের অর্থনৈতিক প্রতিক্রিয়ায় সমস্যার মুখে পড়েছে।

XS
SM
MD
LG