অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে প্রতি ৯৩ হাজার ২৭৩ জন মানুষের জন্য মাত্র একটি ভেন্টিলেটর রয়েছে


করোনা সংক্রমণের চিকিৎসায় অপরিহার্য ও অত্যাবশ্যকীয় ভেন্টিলেটর-এর সংখ্যা বাংলাদেশের বলতে গেলে না থাকায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে এ ধরনের মানবিক বিপর্যয়ে বাংলাদেশকে সহায়তা করার জন্য জরুরি আন্তর্জাতিক সাহায্যের আবেদন জানিয়েছে সেভ দ্য চিলড্রেন। আন্তর্জাতিক সংস্থা সেভ দ্য চিলড্রেন বিশ্বব্যাপী প্রচারিত এক বিবৃতিতে বলেছে, সাড়ে ১৬ কোটি জনসংখ্যার বাংলাদেশে ভেন্টিলেটর আছে অথবা আসার অপেক্ষায় আছে- এমন সংখ্যা মাত্র ১৭৬৯ অর্থাৎ প্রতি ৯৩ হাজার ২৭৩ জন মানুষের জন্য রয়েছে মাত্র একটি ভেন্টিলেটর। আবার এগুলো রয়েছে বড় বড় শহর এলাকায়। সংস্থাটি বলছে, কক্সবাজারের মোট জনসংখ্যা ৩৩ লাখ, যার মধ্যে ১০ লাখের মতো রোহিঙ্গা শরণার্থী। কিন্তু পুরো এলাকায় একটিও ভেন্টিলেটর নেই। সেভ দ্য চিলড্রেন বলছে, বিশ্বব্যাপী স্বাস্থ্য ব্যবস্থার মহাবিপদ ও ভয়ংকর ঝুঁকি করোনা যদি আরো ব্যাপকতর পর্যায়ে ছড়িয়ে পড়ে তাহলে ব্যাপকমাত্রায় প্রাণ হারাবে মানুষ।
সেভ দ্য চিলড্রেনের রোহিঙ্গা বিষয়ক কর্মকর্তা অ্যাথেনা রেবার্ন বলেন, বাংলাদেশের জনগোষ্ঠী এবং রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মানবিক বিপর্যয় থেকে রক্ষা করতে জরুরি প্রয়োজন ভেন্টিলেটর এবং তা চালানোর মত প্রশিক্ষিত ব্যক্তি। বিবৃতিতে সেভ দ্য চিলড্রেন বাংলাদেশের ডেপুটি কান্ট্রি ডিরেক্টর ডা. শামীম জাহান বলেন, করোনা ছড়িয়ে পড়লে ভেন্টিলেটরের ক্ষেত্রে যে ব্যাপক চাহিদা দেখা দেবে তা পূরণ করা বাংলাদেশের জন্য বর্তমান পর্যায়ে কঠিন হবে।

XS
SM
MD
LG