অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে বিশেষজ্ঞ মন্তব্য


রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন হয়েছে নির্ধারিত সময়ের পরে, মিয়ানমারের বিলম্ব করার কারণে। ২৩ নভেম্বর প্রত্যাবাসনের ক্ষেত্রে দুই দেশের মধ্যে যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়, তাতে স্বাক্ষরের দিন থেকে ২ মাসের মধ্যে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া শুরুর কথা উল্লেখ রয়েছে। সে হিসেবে ২৩ জানুয়ারির মধ্যে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া শুরুর কথা। কিন্তু এখনো অনেক কাজ বাকি রয়েছে, রয়েছে নানা জটিলতাও।

তাহলে কি এ স্বল্প সময়ের মধ্যে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া শুরু সম্ভব হবে-এসব বিষয় বিশ্লেষণ করেছেন আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা আইওএম-এর সাবেক কর্মকর্তা এবং বর্তমানে শরণার্থী ও অভিবাসন বিষয়ক বিশ্লেষক আসিফ মুনীর।




XS
SM
MD
LG