অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশ ব্যাঙ্কের রিজার্ভ চুরির টাকা উদ্ধারে চলতি মাসেই নিউইয়র্কের আদালতে মামলা


বাংলাদেশ ব্যাঙ্ক থেকে চুরি হওয়া রিজার্ভের টাকা উদ্ধারে চলতি মাসেই নিউইয়র্কের আদালতে মামলা করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। অর্থমন্ত্রী আ. হ. ম. মুস্তফা কামাল এই তথ্য জানিয়েছেন।

আন্তর্জাতিক আদালতের আইন অনুযায়ী এ মামলাটি ৩রা ফেব্রুয়ারির মধ্যে দায়ের করতে হবে। অর্থমন্ত্রী বলেছেন, এই সময়ের মধ্যেই তা করা সম্ভব। ২০১৬ সালের ৪ঠা ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব নিউইয়র্কে রক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাঙ্কের হিসাব থেকে ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি হয়। সুইফটের নিরাপত্তা ব্যবস্থা হ্যাক্টড করে পাঁচটি সুইফট বার্তার মাধ্যমে চুরি হওয়া এ অর্থের মধ্যে শ্রীলঙ্কায় যাওয়া দুই কোটি ডলার ফেরত আসে। কিন্তু ফিলিপাইনে যাওয়া ৮ কোটি ১০ লাখ ডলারের মধ্যে এখনও ফেরত আসেনি ৬ কোটি ৬৪ লাখ ডলার।

বাংলাদেশ ব্যাঙ্কের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাস উদ্দিনের নেতৃত্বে গঠিত ৩ সদস্যের কমিটি বিস্তারিত তুলে ধরেছিল। কিন্তু রিপোর্টটি আলোর মুখ দেখেনি। সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়, হ্যাকারদের ১০০ কোটি ডলার সরানোর পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু চুরি হয় ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার। তদন্ত কমিটির রিপোর্টে এই টাকা চুরির জন্য বাংলাদেশ ব্যাঙ্কের ৮ কর্মকর্তার গাফিলতি, দায়িত্বে অবহেলা ও অসতর্কতাকে দায়ী করা হয়। তৎকালীন গভর্নর ড. আতিউর রহমান ঘটনাটি তাৎক্ষণিকভাবে সরকারকে না জানিয়ে এক মাস পর অবহিত করেন। কমিটি বলেছে, এটা ছিল একটি গর্হিত অপরাধ।

রিজার্ভ চুরির ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ফিলিপাইনের আরসিবিসি ব্যাঙ্কের শাখা ব্যবস্থাপক মায়া শান্তোস দিগুইতোকে ৫৬ বছরের সাজা দিয়েছেন সে দেশের আদালত।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:36 0:00
সরাসরি লিংক


XS
SM
MD
LG