অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বছরের প্রথম সাড়ে নয় মাসে বাংলাদেশে বজ্রপাতে ৩২৯ জনের মৃত্যু হয়েছে


আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবসের প্রাক্কালে মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে কথা বলছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান- ফটো- পিআইডি

বাংলাদেশে ২০২১ সালের প্রথম সাড়ে নয় মাসে বজ্রপাতে অন্তত ৩২৯ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান।

আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবসের প্রাক্কালে মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন দেশে ঘূর্ণিঝড়ে ধাক্কা কমলেও ক্ষয়ক্ষতি বাড়ছে বজ্রপাত-বন্যার মত প্রাকৃতিক দুর্যোগে। তিনি বলেন বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত বাংলাদেশও বুধবার নানা আয়োজনে দিবসটি পালন করা হবে। এনামুর রহমান বলেন বজ্রপাতে সবগুলো মৃত্যুই হয়েছে খোলা স্থানে। সরকার তাই দেশের বজ্রপাত প্রবণ এলাকা গুলোতে আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণের পরিকল্পনা করছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

গত এক দশকে ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতির পাশাপাশি উপকূলীয় এলাকায় আশ্রয়কেন্দ্র স্থাপন ও জরুরি ভিত্তিতে জান-মাল রক্ষার ব্যবস্থাপনায় অনেক উন্নতি হয়েছে বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন তাতে ঘূর্ণিঝড়ে প্রাণহানি ও ক্ষয়ক্ষতি কমলেও বজ্রপাত ও বন্যার মত দুর্যোগ বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে সম্পদ ও প্রাণহানির শঙ্কাকে বাড়িয়ে দিচ্ছে। তিনি বলেন, ২০১৫ সালে বজ্রপাতকে জাতীয় দুর্যোগ হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয় এবং সে বছর দেশে বজ্রপাতে মারা গিয়েছিলেন ২২৬ জন মানুষ।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে দুর্যোগ ববস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে বলা ২০১০ সাল থেকে ২০২০ সাল এই এগারো বছরে দেশে বজ্রপাতে মোট মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৩৭৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে, আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এক বার্তায় বলেছেন দুর্যোগ মোকাবিলায় জনপ্রতিনিধি, জনপ্রশাসন, সমাজকর্মী, গণমাধ্যমকর্মীসহ সমাজের সকলকে একসঙ্গে কাজ করে যেতে হবে। তিনি বলেন যথাযথ কর্মসূচি গ্রহণের মধ্য দিয়ে আধুনিক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলা সম্ভব হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

XS
SM
MD
LG