অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে ওমিক্রন মোকাবিলায় পরামর্শক কমিটির ৪ সুপারিশ, সফর বাতিল করে ঢাকা ফিরলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী


ছবি সৌজন্য: রয়টার্স

বাংলাদেশে ওমিক্রন আতঙ্ক ক্রমশ বাড়ছে। অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ এই ভাইরাস মোকাবিলায় কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক তার নির্ধারিত জেনেভা সফর বাতিল করেছেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিশেষ অধিবেশনে যোগ দেয়ার জন্য দুবাই পর্যন্ত গিয়েছিলেন। সেখান থেকে অন্য একটি ফ্লাইটে ঢাকায় ফিরেছেন।

করোনা সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির এক জরুরি বৈঠকে বিশ্বব্যাপী ওমিক্রন পরিস্থিতি পর্যালোচনা করা হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তরফে বাংলাদেশের সব বন্দরগুলোতে বিশেষ নজরদারির নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। জাতীয় কারিগরি কমিটি প্রাথমিক পর্যায়ে চারটি নির্দেশনা দিয়েছে। বলা হয়েছে, যে সমস্ত দেশে সংক্রমণ ছড়িয়েছে সে সমস্ত দেশের যাত্রী আগমন বন্ধ করতে হবে। যদি কোনো ব্যক্তির আক্রান্ত দেশ ভ্রমণের ইতিহাস থাকে তাহলে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। কোভিড-১৯ এর টেস্ট পজিটিভ হলে আইসোলেশনে থাকতে হবে। প্রতিটি বন্দরে সামাজিক সুরক্ষা সংক্রান্ত ব্যবস্থা আরও কঠোরভাবে পালন করতে হবে। রাজনৈতিক ও সামাজিক সমাবেশে জনসমাগম সীমিত করতে হবে।

এ ছাড়া কমিটি করোনা পরীক্ষায় জনগণকে আরও উৎসাহিত করার জন্য বিনামূল্যে পরীক্ষা করার সুপারিশ করেছে। কমিটির সভায় বলা হয়েছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ওমিক্রনকে ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্ন হিসেবে ঘোষণা করেছে। এর বিস্তার রোধ করার জন্য এশিয়া, ইউরোপ, আমেরিকার অনেক দেশ যাত্রী আগমনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এর মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা, জিম্বাবুয়ে, নামিবিয়া, বোতসোয়ানা ও সোয়াজিল্যান্ড।

এই অবস্থায় বাংলাদেশেও উল্লিখিত দেশগুলো থেকে যাত্রী আগমন বন্ধ করতে হবে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম বলেছেন, যেহেতু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ওমিক্রনকে উদ্বেগজনক বলে বর্ণনা করেছে সেজন্য আমাদের হেলাফেলা করার সুযোগ নেই। কোনোভাবেই আমাদের আত্মতুষ্টিতে ভোগারও কারণ নেই। তাই সংক্রমণ মোকাবিলায় ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিধি এবং শিষ্টাচার মেনে চলতে হবে।

ওদিকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরগুলোতে বাড়তি ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। প্রত্যেক যাত্রীর স্ক্রিনিং টেস্টিং এবং কোভিড প্রটোকলের ওপর জোর দিতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে জিনোম সিকোয়েন্সিং-এর ওপর বাড়তি নজর দিতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG