অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে তথ্য ও প্রযুক্তি আইনের বিতর্কিত ৫৭ ধারা বিলুপ্ত হয়েছে


তথ্য ও প্রযুক্তি আইনের বিতর্কিত ৫৭ ধারা বিলুপ্ত হয়েছে। তবে নতুন করে ৫৪ ধারায় আরো বেশি নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করা হয়েছে। সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রী পরিষদের বৈঠকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন অনুমোদন দেয়া হয়। এই আইনে সাংবাদিকদের তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহের ওপর এক ধরনের প্রচ্ছন্ন নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা হয়েছে। বলা হয়েছেÑ সরকারি, আধা সরকারি স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে কেউ যদি বেআইনীভাবে প্রবেশ করে কোন ধরনের তথ্য-উপাত্ত কিংবা কোন ধরনের ইলেক্ট্রনিক্স যন্ত্রপাতি দিয়ে গোপনে রেকর্ড করে তাহলে সেটা গুপ্তচর বৃত্তির অপরাধ বলে গণ্য হবে। এই অপরাধে ১৪ বছরের কারাদ- ও ২০ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয়দ-ের বিধান রাখা হয়েছে। জানতে চাইলে বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম বলেন, এ আইনের মাধ্যমে মিডিয়াকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করা হবে।

বলা হয়েছে, এই আইনের আওতায় কেউ যদি ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করে মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কোনো ধরনের প্রপাগা-া চালান তাহলে ১৪ বছরের জেল ও ১ কোটি টাকা জরিমানা বা উভয়দ-ে দ-িত হবেন। ধর্মীয় বোধ ও অনুভুতিতে আঘাত করলে ১০ বছরের জেল হবে। মানহানিকর তথ্য দিলে ৩ বছরের জেল ও ৫ লাখ টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:48 0:00

XS
SM
MD
LG