অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

অসমের এনআরসি নিয়ে বাংলাদেশ সরকারকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বিশ্লেষকরা


বাংলাদেশের সীমান্তের সন্নিকটে ভারতের অসম রাজ্যের নাগরিক পুঞ্জি বা এনআরসি'র চূড়ান্ত তালিকা থেকে প্রায় ১৯ লাখ লোক বাদ পড়ার বিষয়টিকে হালকা ভাবে না নেয়ার জন্য বাংলাদেশ সরকারকে পরামর্শ দিয়েছেন কূটনীতিক বিশ্লেষকরা।

তাঁদের মতে ভারত যদিও বলছে এনআরসি দেশটির অভ্যন্তরীণ বিষয় এবং এ নিয়ে বাংলাদেশের চিন্তার কারন নাই, তারপরও বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ উদ্বিগ্ন না হয়ে পারছেন না। বিশেষ করে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ তাঁর সাম্প্রতিক অসম সফরকালে এনআরসি নিয়ে যে ভাষায় কথা বলেছেন, তাতে বাংলাদেশের মানুষের শঙ্কিত হওয়ার যথেষ্ট কারন রয়েছে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন। অমিত শাহ সুস্পষ্ট ভাষায় বলেছেন, এনআরসি'র চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ পড়াদের তাড়িয়ে দেয়া হবে।

বাংলাদেশ সরকারের তরফে অবশ্য বার বার দাবি করা হচ্ছে, এনআরসি নিয়ে বাংলাদেশের চিন্তার কোন কারণ নাই যেহেতু এটা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়।

ভারতের অসম রাজ্যের এনআরসি নিয়ে ভয়েস অব আমেরিকার সাথে কথা বলেছেন বাংলা দৈনিক ইত্তেফাকের কূটনৈতিক সম্পাদক মাইনুল আলম। বিশ্লেষকরা বলছেন আইনী জটিলতার কারনে এনআরসি থেকে বাদ পড়া মানুষদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে এখনো কিছু সময় লাগবে। তারপরও বিষয়টিকে সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণে রাখার এবং সতর্ক থাকার জন্য সরকারকে পরামর্শ দিয়েছেন বিশ্লেষকরা।

please wait

No media source currently available

0:00 0:05:10 0:00


XS
SM
MD
LG