অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ঢাকার শাহবাগ এলাকা থেকে ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেপ্তার


বাংলাদেশে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে প্রথমবারের মতো একজন ওসিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ফেনীর সোনাগাজী থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি মাদ্রাসা ছাত্রী নূসরাত জাহান রাফির জবানবন্দির ভিডিও ইন্টারনেটের মাধ্যমে প্রচার করেন। যা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

মাদ্রাসা ছাত্রী নূসরাত তার মাদ্রাসা অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ আনার পর ওসি মোয়াজ্জেম তাকে ডেকে পাঠান এবং ভিডিও করেন। এর কয়েকদিন পর নূসরাতের গায়ে আগুন দেয়া হয়। পরিণতিতে তার মৃত্যু হয়। এ নিয়ে দেশব্যাপী ব্যাপক প্রতিক্রিয়া হয়। তখনই নূসরাতের জবানবন্দির ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। অগ্নিদগ্ধ নূসরাতের মৃত্যুর পর এই ভিডিও ছড়ানোর অপরাধে মোয়াজ্জেমকে আসামী করে ঢাকায় ডিজিটাল আইনে মামলা করেন আইনজীবী সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

রোববার ঢাকার শাহবাগ এলাকা থেকে ওসি মোয়াজ্জেমকে গ্রেপ্তার করা হয়। ঢাকা মহানগর পুলিশের রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার মারুফ হোসেন সর্দার বলেন, মোয়াজ্জেমকে সোনাগাজী থানায় পাঠানো হবে। সেখানেই তার বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে।

ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি হলেও ২০ দিন পালিয়ে ছিলেন। যদিও সোনাগাজী থেকে প্রত্যাহার করে তাকে রংপুরে পাঠানো হয়েছিল। মোয়াজ্জেম আগাম জামিনের জন্য উচ্চ আদালতে গিয়েছিলেন। আর সেখানেই তার বিপত্তি ঘটে। হাইকোর্টের নিয়মিত বেঞ্চে জামিনের আবেদনের পর পুলিশের হাতে ধরা পড়েন।

please wait

No media source currently available

0:00 0:00:58 0:00


XS
SM
MD
LG