অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি হিসেবে আবদুল ওয়াহহাব মিঞা কাজ শুরু করেছেন


বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে নিয়ে বিতর্ক অনেকটা মিইয়ে গিয়েছিল। সোমবার হঠাৎ করে ছুটিতে যাওয়ার সিদ্ধান্তে নতুন করে বিতর্ক চাঙ্গা হয়েছে। অবস্থা এমনই অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমকে বলতে হয়েছে তিনি গৃহবন্দি নন। আইনমন্ত্রী বলেছেন, ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ায় প্রধান বিচারপতি এক মাসের ছুটিতে গেছেন। সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশন বলেছে, চাপ দিয়ে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে প্রধান বিচারপতিকে। যাকে নিয়ে এতসব হচ্ছে তিনি রয়েছেন একদম পর্দার আড়ালে।

মঙ্গলবার হেয়ার রোডের বাড়ি থেকে বের হননি। দেননি কারো সঙ্গে সাক্ষাৎ। ষোড়শ সংশোধনীর রায়ের পর আগস্ট মাস জুড়েই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। আদালত বন্ধ থাকায় প্রায় একমাস বিতর্কের বাইরে ছিলেন তিনি। এক পর্যায়ে তিনি কানাডা ও জাপান সফর করেন। দীর্ঘ ছুটির পর মঙ্গলবার আদালতের কার্যক্রম শুরু হওয়ার প্রাক্কালে প্রধান বিচারপতি ছুটিতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। এরপর থেকেই নানা গুজব ছড়িয়ে পড়ে।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী রায়ের সঙ্গে প্রধান বিচারপতির ছুটির কোন সম্পর্ক নেই। যারা এটাকে সংযোগ করতে চাইছে তাদের কোন দুরভিসন্ধি রয়েছে বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি জয়নুল আবেদীন বলেছেন, এভাবে একজন প্রধান বিচারপতি ছুটিতে যান না। এটা বিচার ব্যবস্থার জন্য দুর্ভাগ্যজনক। এটা কারো জন্য মঙ্গলজনক নয়।

ওদিকে, সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের প্রবীণতম বিচারপতি আবদুল ওয়াহহাব মিঞা ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি হিসেবে কাজ শুরু করেছেন।

XS
SM
MD
LG